বরিশালে কারা অভ্যন্তরে নিয়ে সাংবাদিককে নির্যাতন, ৫ কারারক্ষী বহিস্কার

বরিশালে কারা অভ্যন্তরে নিয়ে সাংবাদিককে নির্যাতন, ৫ কারারক্ষী বহিস্কার

মশিউর দিপু, বরিশাল প্রতিনিধি: বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারের অভ্যন্তর থেকে ভ্যান বোঝাই গম নিয়ে বেড় হওয়ার সময় কারারক্ষীদের টানা হেচড়ার ছবি তুলতে গিয়ে হামলার শিকার হয়েছেন দৈনিক যুগান্তর বরিশাল ব্যুরোর ফটো সাংবাদিক শামীম আহম্মেদ।

আজ শনিবার দুপুর আড়াইটায় বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগারের প্রধান ফটকে এই ঘটনা ঘটে। নির্যাতনের স্বীকার সাংবাদিক শামীম আহম্মেদকে গুরুত্বর আহত অবস্থায় বরিশাল জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

নির্যাতনের খবর সাংবাদিকদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়লে বিক্ষোভের মুখে পাঁচ কারারক্ষীকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়।

আহত ফটো সাংবাদিক শামীম আহম্মেদ বলেন, ‘বরিশাল কেন্দ্রীয় কারাগার থেকে একটি ভ্যানে করে ১১ বস্তা গম বের করার সময় পুলিশ ওই গম আটক করে। এ সময় কারারক্ষী ও পুলিশের মধ্যে গমের বস্তা নিয়ে টানাটানি হয়। ওই টানা হেচড়ার ছবি তুলতে গেলে কারারক্ষীরা কারাগারের প্রধান ফটকের সামনে বসেই আমাকে মারধর শুরু করে। পরে কারা অভ্যন্তরে নিয়ে গিয়ে বুট দিয়ে লাথি ও এলোপাথারি পেটায় কারারক্ষীরা। এ সময় সামনে জেলার ইউনুস জামান দাড়িয়ে থাকলেও তিনি কোনো বাঁধা দেয়নি।’

এই ঘটনায় তাৎক্ষনিক বরিশালের সিনিয়র সাংবাদিকরা ঘটনাস্থলে গিয়ে বিক্ষোভ করে এবং ডিআইজি প্রিজন তওহিদুল ইসলাম ও সিনিয়র জেল সুপার প্রশান্ত কুমার বনিকের কাছে এই ঘটনার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি করেন। ওই পরিপ্রেক্ষিতে কারাগারের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা তাৎক্ষনিক হামলা ও মারধরের ঘটনায় জড়িত ৫ জনকে সাময়িক বরখাস্ত করেন এবং পরে তাদের বিরুদ্ধে বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহণের আশ্বাস দেন।

এই বিষয়ে ডিআইজি প্রিজন তওহিদুল ইসলাম জানান, এই ঘটনায় যারা জড়িত রয়েছে তাদের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।