আপনার টুথব্রাশে কত কোটি ব্যাকটেরিয়া জানেন!

লাইফস্টাইল ডেস্ক :: হাত থেকে শুরু করে চারপাশে অসংখ্য জীবাণু ছড়িয়ে ছিটিয়ে রয়েছে। এগুলো খালি চোখে দেখা যায় না। আর সেজন্য সতর্ক হওয়ার খুব একটা প্রয়োজন মনে করি না আমরা। অথচ অনুবীক্ষণ যন্ত্র দিয়ে দেখলে আঁতকে উঠবেন আপনি।

আপনার পুরনো টুথব্রাশটিতে যে ১ কোটিরও বেশি ব্যাকটেরিয়া স্বাধীনভাবে ঘুরে বেড়াচ্ছে তা আপনি জানেনই না। আপনার দাঁতের ব্রাশটিতে রীতিমতো বাসা বেঁধে আছে ব্যাকটেরিয়ারা!

একটি গবেষণায় বলা হচ্ছে, আপনার ব্যবহৃত ব্রাশটি ব্যাকটেরিয়া টানার জন্য চুম্বকক্ষেত্রের মতোই কাজ করে। তার মধ্যে রয়েছে ই. কোলি ও স্ট্যাফ জাতীয় ভয়াবহ ব্যাকটেরিয়া। সে কথাই বলছেন ম্যানচেস্টার ইউনিভার্সিটির গবেষকরা। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএনআই।

দাঁত বিশেষজ্ঞ ডক্টর অ্যান ওয়েই বলছিলেন, ব্রাশ না করা মুখের অভ্যন্তরে একটি জীবাণুভর্তি বাথরুমের মেঝের সমপরিমাণ ব্যাকটেরিয়া থাকতে পারে। আমরা যখন বেসিনে হাত-মুখ ধুই, তখন ছিটে যাওয়া পানি কিংবা ফ্লাশ করা টয়লেটের ঢাকনা খোলা থাকলে সেখান থেকে ব্যাকটেরিয়া আপনার দাঁতের ব্রাশটিকে দূষিত করে তোলে।

তবে নানাভাবেও সেটা ঘটতে পারে। আর যদি আপনার টুথব্রাশটি মেঝেতে পড়ে যায় সঙ্গে সঙ্গে লাখো ব্যাকটেরিয়া হামলে পড়ে। বাতাসে ও মেঝেতে থাকা সব ব্যাকটেরিয়াকে চুম্বকের মতো আকর্ষণ করে আপনার প্রিয় ব্রাশটি। তাই ব্রাশটি পরিষ্কার ও ক্যাপ পরিয়ে রাখুন। ব্যাকটেরিয়ার হামলে পড়া থেকে রক্ষা করুন। অন্তত ৩ বা ৪ মাস পরপর ব্রাশ পরিবর্তন করুন। নিজেকে সুস্থ রাখুন।

Sharing is.

Share on facebook
Share with others
Share on google
Share On Google+
Share on twitter
Share On Twitter
  • You May Also Like: