সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ২৯শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

নারীকে নিয়ে লিভ টুগেদার, সুন্দরী শিশুদের দেহব্যবসা করাতো পুলিশের এসআই!

৮:৩৯ অপরাহ্ণ | রবিবার, জানুয়ারি ২৭, ২০১৯ আলোচিত
si arrested in sylhet

সিলেট প্রতিনিধি :: শিশুদের দিয়ে জোরপূর্বক পতিতাবৃত্তি করানোর অপরাধে সিলেট নগরীর দাড়িয়াপাড়া এলাকা থেকে রোকন উদ্দিন ভূঁইয়া (৪০) নামে পুলিশের এক উপ-পরিদর্শক (এসআই) ও তার ভুয়া স্ত্রীকে গ্রেফতার করেছে (র‌্যাব)। এ সময় ১২ বছরের দুই নির্যাতিত শিশুকে উদ্ধার করা হয়েছে।

শনিবার রাতে সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মাঈন উদ্দিন চৌধুরীর নেতৃত্বে র‌্যাব-৯-এর একটি দল গোপন সংবাদের ভিত্তিতে অভিযান চালিয়ে নগরীর দাড়িয়াপাড়ার মেঘনা এ-২৬/১ ফ্ল্যাটের নিচতলা থেকে তাদের গ্রেফতার করে।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- রোকন উদ্দিন ভূঁইয়া (৪০) ও তার ভুয়া স্ত্রী রিমা বেগম (৩৫)। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে কৌশলে পালিয়ে যাওয়ার সময় তাদেরকে গ্রেফতার করা হয়।

অভিযানে উদ্ধারকৃত নির্যাতিত দুই শিশু হলো- কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ উপজেলার মাঝিকোনা গ্রামের মো. জুয়েল মিয়ার মেয়ে তামান্না আক্তার তমা (১২) ও সিলেটের গোলাপগঞ্জ উপজেলার ফুলবাড়ী গ্রামের আশুক আহম্মেদের মেয়ে দিপা (১২)।

র‌্যাব-৯-এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক মো. মনিরুজ্জামান বলেন, গ্রেফতার রোকন উদ্দিন ভূঁইয়া পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টর (এসআই) হিসেবে বর্তমানে ৭-আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ন সিলেটের লালাবাজারে কর্মরত আছেন।

তিনি নগরীর মুন্সিপাড়া এলাকার মৃত আব্দুল রশিদের ছেলে। গ্রেফতার রিমা বেগম নেত্রকোনার কালিয়াজুড়ি থানাধীন আটগাঁও গ্রামের মৃত মফিজুল মিয়ার মেয়ে।

মো. মনিরুজ্জামান আরও বলেন, গ্রেফতার দুইজন অবৈধভাবে স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দিয়ে দাড়িয়াপাড়া এলাকায় লিভ টুগেদার করতেন। সিলেটের বিভিন্ন স্থান থেকে গরিব, অসহায় ও সুন্দরী তরুণী ও শিশুদের ভালো কাজের প্রলোভন দেখিয়ে ইয়াবা সেবনের মাধ্যমে পতিতাবৃত্তি করতে বাধ্য করতো।

গ্রেফতার দুইজনকে সিলেট কোতোয়ালি থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন র‌্যাব-৯-এর সিনিয়র সহকারী পরিচালক মো. মনিরুজ্জামান।