• আজ ৪ঠা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

‘পাইলটের ধূমপান নয়, কন্ট্রোল টাওয়ারের দায়িত্বহীনতায় এ দুর্ঘটনা’

৭:১১ অপরাহ্ণ | সোমবার, জানুয়ারি ২৮, ২০১৯ আলোচিত
486e98

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- নেপালের রাজধানী কাঠমান্ডুর ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণের সময় ইউএস-বাংলার উড়োজাহাজ দুর্ঘটনার বিষয়ে বাংলাদেশ সিভিল এভিয়েশন অথরিটি বলছেন, ‘নেপালের তদন্তে বলা হচ্ছে পাইলট ককপিটে বসে ধূমপান করছিলেন। এ নিয়ে বিতর্কের কিছু নেই। কারণ, এয়ারক্রাফটে ধূমপান না করার আন্তর্জাতিকভাবে কোনো বিধিনিষেধ নেই। তবে টয়লেটে ধূমপান না করার জন্য নির্দেশনা থাকে। সুতরাং এটি দুর্ঘটনার কোনো কারণ নয়।’

সোমবার বাংলাদেশ বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষের (বেবিচক) প্রধান কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সিভিল অ্যাভিয়েশনের চেয়ারম্যান এম নাঈম হাসান বলেছেন, পাইলটের কিছু ভুল ছিল। তবে কন্ট্রোল টাওয়ার চাইলে বা আরও দায়িত্বশীল হলে অন্তত বিমান দুর্ঘটনাটি ঘটত না।’

গত বছরের ১২ মার্চ ৭১ জন আরোহী নিয়ে ঢাকা থেকে কাঠমান্ডুগামী বাংলাদেশের বেসরকারি বিমান সংস্থা ইউএস-বাংলার ফ্লাইট বিএস২১১ ত্রিভুবন আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে বিধ্বস্ত হয়। এতে নিহত ৫১ জনের মধ্যে ২২ জন নেপালি ও একজন চীনা নাগরিক, অন্যরা সবাই বাংলাদেশি।

এদিকে ইউএস-বাংলার বিমান বিধ্বস্তের ঘটনার দায় আবারও বাংলাদেশের পাইলট আবিদ সুলতানের ওপর চাপানোর চেষ্টা করা হয়েছে নেপালের তরফ থেকে। তাদের প্রতিবেদনে বলা হয়, দুর্ঘটনার কারণ হিসেবে মনে করা হচ্ছে, নিষেধ থাকা সত্ত্বেও বিমানের ককপিটে পাইলটের ধূমপান।

তবে নেপালের দুর্ঘটনা তদন্ত কমিশনের এই বক্তব্য মেনে নেয়নি ইউএস-বাংলা কর্তৃপক্ষ। সিভিল এভিয়েশন সূত্র জানায়, ককপিট ভয়েস রেকর্ডার ও ফ্লাইট ডাটা অনুসারে নেপালের তদন্ত কমিশনের দাবির সত্যতা নেই।