হাতকড়া হাতে সিলেটের হাসপাতালে গুলিবিদ্ধ প্রবাসী!

৬:০৫ অপরাহ্ণ | রবিবার, ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৯ আলোচিত
handcuff in immigrant hand at sylhet hospital

সিলেট প্রতিনিধি :: সিলেটে দুই পক্ষের সংঘর্ষের মধ্যে পড়ে গুলিবিদ্ধ এক প্রবাসীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হলে সেখানে গিয়ে তার হাতে হাতকড়া পড়িয়েছে পুলিশ। সিলেট এম.এ.জি. ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওই প্রবাসীর হাতে হাকড়া উঠলেও ওই প্রবাসীকে যে গুলি করেছে তাকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। এমনকি যে আগ্নেয়াস্ত্র দিয়ে গুলি করেছে তাও উদ্ধার করতে পারেনি পুলিশ। বর্তমানে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় চিকিৎসা চলছে লন্ডন প্রবাসীর।

জানা গেছে, লন্ডন প্রবাসী মোমিন চৌধুরী শাহিন কয়েকদিন আগে লন্ডন থেকে দেশে ফেরেন। জগন্নাথপুরের চাহারিয়া গ্রামের আতর আলীর ছেলে শাহিন। তার স্ত্রী-বাচ্চারা লন্ডনে থাকেন। গত মঙ্গলবার গ্রামের জাবেদ মিয়া ও কমলা মিয়া পক্ষের মধ্যে জমি নিয়ে সংঘর্ষ হয়। মারামারির মাঝখানে পড়ে গুলিবিদ্ধ হন তিনি। এসময় স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। পরে সিলেট ওসমানী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এমন সময় পুলিশ এসে তাকে গ্রেপ্তার করছে অন্যপক্ষের মামলার আসামি হিসেবে। অভিযোগ প্রমাণ হবার আগেই হাসপাতালের বেডেই তাকে কুখ্যাত আসামির মতো হাতকাড়া পরানো হয়েছে। শরীরে অপারেশন লাগতে পারে তার। এই অবস্থায় তার শয্যপাশে পুলিশি পাহারা, হাতে হাতকড়া।

অথচ তাকে যে গুলি করেছে সেই আসামিকে গ্রেপ্তার করেনি পুলিশ। এমনকি সেই বন্দুকও উদ্ধার হয়নি। এখন হাসপাতালে ছেলের পাশে বসে নীরবে কাঁদছেন বাবা।

আহত প্রবাসী শাহিনের অভিযোগ, পুলিশের কারণে চিকিৎসা ঠিকমতো হচ্ছে না। তাকে গুলিবিদ্ধ করার ঘটনায় কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি এবং বন্দুকও উদ্ধার হয়নি।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে জগন্নাথপুর থানার ওসি হারুনুর রশিদ চৌধুরী বন্দুক উদ্ধার এবং প্রবাসীকে গুলি করা আসামি গ্রেফতারের বিষয়টি এড়িয়ে যান। তিনি জানান, দুপক্ষের মামলা হয়েছে। শাহিনকে যে বা যারা গুলি করেছে তাকেও আটক করা হবে।