বগুড়ায় মক্তবে নেয়ার কথা বলে ৭ বছরের শিশুকে ধর্ষণচেষ্টা বৃদ্ধের!

৩:২১ অপরাহ্ণ | সোমবার, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৯ রাজশাহী

সাখাওয়াত হোসেন জুম্মা, শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি- বগুড়ার শেরপুরে প্রথম শ্রেণীর শিশু কন্যাকে (৭) ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে গেদা শেখ (৬০) নামের এক বৃদ্ধকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।

গতকাল রোববার বিকালে উপজেলার গাড়িদহ মডেল ইউনিয়নের হাপুনিয়া এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। পরে ওই শিশুর মা রাতেই বাদি হয়ে শেরপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করলে সোমবার সোমবার সকালে মহিপুর বাজার এলাকা থেকে ওই লম্পটকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

জানা যায়, গত ১০ ফেব্রুয়ারি রবিবার বিকাল ৪টার দিকে হাপুনিয়া গ্রামে আশরাফ আলীর প্রথম শ্রেনীতে পড়ুয়া শিশু কন্যা (৭) নিজ বাড়ী থেকে একই এলাকার মক্তবে পড়তে যাচ্ছিল। এসময় পাশের বাড়ির মৃত জয়েন শেখের ছেলে ষাট বছর বয়সী গেদা শেখ ওই শিশু কন্যাকে মক্তবখানায় পৌছে দেয়ার কথা বলে কৌশলে তার লিচু বাগানে নিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়।

শিশুর চিৎকারে বাগানের পাশেই খেলারত অবস্থায় আহাদ ও মনির ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই বৃদ্ধকে দেখে চিৎকার করলে স্থানীয় প্রতিবেশীরা এগিয়ে লম্পট বৃদ্ধকে হাতেনাতে ধরে ফেলে শিশুর বাড়িতে নিয়ে যায়। পরে ওই লম্পটের পরিবারের লোকজনকে বিচার পাইয়ে দিবে মর্মে কৌশলে বৃদ্ধকে ছিনিয়ে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় ওই শিশুর মা বিউটি খাতুন ওই রাতেই বাদি হয়ে শেরপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করে।

এঘটনায় থানা পুলিশের উপ-পুলিশ পরিদর্শক প্রদীপ কুমার অভিযান চালিয়ে সোমবার সকাল ৭টার দিকে উপজেলার মহিপুর বাজার এলাকা থেকে ওই বৃদ্ধ লম্পট গেদা সেখকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে।

এ ব্যাপারে শেরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ মো. হুমায়ুন কবীর বলেন, এ ঘটনায় আসামীকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।