ফুটপাত দখলমুক্ত করতে ডিএনসিসির উদ্যোগে মিরপুরে উচ্ছেদ অভিযান

৮:০৩ অপরাহ্ণ | সোমবার, ফেব্রুয়ারি ১১, ২০১৯ ঢাকা
ucced ovijan

রাজু আহমেদ, ষ্টাফ রিপোর্টার: রাজধানীর যানজট নিরসন ও ফুটপাত দখলমুক্ত করার ব্রত সামনে রেখে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) উদ্যোগে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ অভিযানের অংশ হিসেবে মিরপুর-১ নম্বরে ব্যাপ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালিত হয়েছে।

আজ সোমবার সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত ডিএনসিসির ভারপ্রাপ্ত মেয়র জামাল মোস্তফা ও ঢাকা-১৪ আসনের সাংসদ আসলামুল হকের নেতৃত্বে বিরতিহীন ভাবে এ উচ্ছেদ অভিযান পরিচালিত হয়।

অভিযানে মিরপুর-১ নম্বরের সনি সিনেমা হল থেকে শুরু করে হযরত শাহ আলী (রঃ) এর মাজার শরীফ পর্যন্ত এ অভিযানে বিপুল সংখ্যক অস্থায়ী ও স্থায়ী আধাপাকা অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের পাশাপাশি ফুটপাতের সহস্রাধিক দোকান পাট উচ্ছেদ করা হয়েছে।

মাঝে মাঝেই এমন অভিযান পরিচালিত হলেও দুই-এক দিন পর ‘যেই লাউ সেই কদু’ অবস্থা হওয়ার বিষয়টিকে সামনে রেখে ঢাকা-১৪ আসনের স্থানীয় সাংসদ আসলামুল হক হকার ও ফুটপাতে যারা হকার বসিয়ে চাঁদাবাজি করে তাদের সতর্ক করে ব্যাপক হুশিয়ারী দেন। পুনরায় কেউ ফুটপাত দখল করার চেষ্টা করলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে তাদেরকে হুঁশিয়ার করেন এমপি আসলামুল হক।

এদিকে অভিযান শেষ করে দুপুরে অভিযান পরিচালনাকারী দল স্থান ত্যাগ করলে বিকেলেই মিরপুর-১ নম্বরের সিটি কর্পোরেশন মার্কেটের পাশে বাগদাদ আবাসিক হোটেলের সামনে ফুটপাত দখল করে পুুনরায় হকারদের বিভিন্ন মালামালের পশরা সাজিয়ে বসার সুযোগ করে দেয় একটি চাঁদাবাজ চক্র।

সংশ্লিষ্ট এলাকার অনেক বাসিন্দাই এই উচ্ছেদ অভিযানকে স্বাগত জানালেও বিকেলেই পুনরায় হকারদের ফুটপাত দখলের বিষয়ে ব্যাপক ক্ষোভ প্রকাশ করেছে।

এ বিষয়ে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ভারপ্রাপ্ত মেয়র জামাল মোস্তফা বলেন, নগরীর সৌন্দর্য রক্ষায় ফুটপাত দখলমুক্ত ও অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদের এই অভিযান চলমান থাকবে। কেউ ফুটপাত দখল করার চেষ্টা বা চাঁদাবাজি করছে এমন তথ্য পেলে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করতে সদা প্রস্তুত ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের ম্যাজিষ্ট্রেট সম্বলিত বিশেষ আভিযানিক দল।