ভোলায় পরীক্ষার্থীদের মারধরের ঘটনায় প্রধান শিক্ষক আটক

১০:৫৫ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারি ১২, ২০১৯ আলোচিত
Bhola

এস আই মুকুল, নিজস্ব প্রতিবেদক:ভোলার দৌলতখান উপজেলায় আট পরিক্ষার্থী ও তাদের বহনকারী ইজিবাইক ড্রাইভারকে মারধর করে আহত করার ঘটনায় উপজেলার চরপাতা ইউনিয়নের নলগোড়া শরীফ বাড়ি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিককে আটক করেছে পুলিশ।

সোমবার দিবাগত রাত ১১টার দিকে ওই ইউনিয়নের নলগোড়া এলাকা থেকে তাকে আটক করা হয়।

জানা যায়, সোমবার সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে দণি-পূর্ব নলগোড়া দাখিল মাদ্রাসার ৮ জন পরীার্থী ভোলা-দৌলতখান সড়ক দিয়ে দৌলতখান উপজেলার হাজিরহাট ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে দাখিল পরীা দিতে যাচ্ছিল। এ সময় নলগোড়া শরীফ বাড়ি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক উপজেলা যুবলীগের সহ-সভাপতি মো. মিজানুর রহমান শরীফ ইজিবাইক থামিয়ে উঠতে চায়। শিার্থী ও চালক তাকে উঠতে না দেয়ায় সে শিার্থী ও চালককে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করেন।

পরবর্তীতে শিার্থীরা পরীা দিয়ে বাসায় আসার সময় নলগোড়া গ্রামের বশির মাওলানার বাড়ির সামনে প্রধান শিক মিজান মোটরসাইকেল দিয়ে ইজিবাইকের পথরোধ করেন। পরে প্রধান শিক মিজানুর রহমান ও তাঁর সঙ্গী শিার্থী ও চালককে কিল, ঘুষি ও লাথি দিয়ে মাটিতে ফেলে দেন। এবং মেয়েদেকেও সকলের সামনে রাস্তায় ফেলে মারধর করে। পরে স্থানীয়রা তাদেরকে উদ্ধার করে ভোলা সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। এঘটনায় ওই মাদ্রাসার পরীক্ষার্থী ফারজানা আক্তার, রাবেয়া আক্তার, নিলুফা বেগম, সোনিয়া বেগম, হাফসা আক্তার, রাফিয়া বেগম, মো. রাশেদ ও ইজিবাইক চালক জামাল আহত হয়।

এ ঘটনায় ইজিবাইক চালক মো. জামাল উদ্দিনের স্ত্রী বাদি হয়ে প্রধান শিক্ষক মিজানুর রহমানকে আসামী করে দৌলতখান থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই রিয়াজুল ইসলামের নেতৃত্বে সোমবার রাতে তাকে আটক করা হয়।

দৌলতখান থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এনায়েত হোসেন বলেন, রাতে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত প্রধান শিক্ষকে আটক করেছি এবং মঙ্গলবার সকালে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।