সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ২৬শে শ্রাবণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ডুকরে ডুকরে কাঁদছেন সবাই

১১:৩৩ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ফেব্রুয়ারি ২১, ২০১৯ ফিচার

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা :: চকবাজারের বাসিন্দা মো. মাহির হোসেন। তাকে খুঁজে পাচ্ছে না পরিবার। ভাইকে খুঁজতে ঢাকা মেডিকেলে পাগলের মতো ঘুরে বেড়াচ্ছেন বোন নূর আনহা। বোনেরা খুঁজে পাচ্ছে না স্বামী সন্তানকে। নিখোঁজ রয়েছেন জহিরেরা। মৃতদের খোঁজে ঢামেকে আসছেন অনেকে। ভিড় জমতে শুরু করেছে হাসপাতাল। ডুকরে ডুকরে কাঁদছেন সবাই। সান্ত্বনা দেয়ার ভাষা যেন হারিয়ে ফেলেছে স্বজনেরা।

ভাই আব্দুর রহিমকে খুঁজে পাচ্ছেন না ইসমাইল হোসেন। ঢাকা মেডিকেলে ছেলের খোঁজে এসেছেন আমজাদ হোসেন। তিনি পুড়ে যাওয়া স্টেশনারি দোকান ওয়াসিফ এন্টারপ্রাইজের মালিক।

চারদিকে অন্ধকার দেখছে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষেরা। কি হতে কি হয়ে গেল বুঝে আসছে না কিছুই। এক নিমিষেই যেন সব শেষ হয়ে গেল সবার। এভাবেই কেঁদে কেঁদে বলছিলেন নিহতের স্বজনেরা।

এদিকে পুরান ঢাকার চকবাজারের পাঁচটি বহুতল ভবনে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ৭০ জন নিহত হয়েছেন। মৃতের এ সংখ্যা আরও বাড়তে পারে। প্রাথমিকভাবে কয়েকজনের লাশ উদ্ধার হলেও আগুন নিয়ন্ত্রণে আসতেই একের পর এক উদ্ধার হচ্ছে নিথর ঝলসানো দেহ। অর্ধশতাধিক ঢাকা মেডিকেল বার্ন ইউনিটে ভর্তি। হতাহতদের নাম পরিচয় জানা যায়নি।

বুধবার (২০ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত ১০টা ১০ মিনিটে আগুন লাগে। রাত সাড়ে তিনটার দিকে আগুনের ভয়াবহতা কিছুটা কমলেও আবারও বেরে যায়। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করছে ফায়ার সার্ভিসের ৩৭টি ইউনিট।

ফায়ার সার্ভিসের মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনালের আলী আহাম্মেদ খান, গাড়ির সিলিন্ডার বিস্ফোরণ থেকে আগুনের সুত্রপাত।

ফায়ার সার্ভিসের ডিজি বলেন, আগুন লাগার পর থেকেই পর্যায়ক্রমে ফায়ার সার্ভিসের অন্তত ৩৭টি ইউনিটের দুইশতাধিক ফায়ার ফাইটার্স কাজ করছে। এই জায়গাটা আসলে সংকির্ণ, আমাদের পানির শঙ্কট হয়েছিল। এখানে বিভিন্ন ধরণের ক্যামিকেল আছে। আমরা দ্রুত আগুন নেভানোর চেষ্টা করছি।

তিনি আরও বলেন, ডিএসসিসির মেয়র সাঈদ খোকনের নির্দেশে একটি তদন্ত কমিটি গঠন হচ্ছে। তদন্ত করলেই বোঝা যাবে।

ঘটনাস্থল পরিদর্শনে গিয়ে ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন মেয়র সাঈদ খোকন বলেন, ফায়ার সার্ভিসের শতাধিক কর্মীসহ অনেকেই এখানে কাজ করছেন। নগরবাসী, দেশবাসী সবার দোয়া চাচ্ছি, যাতে করে সাধারণ মানুষের জানমালের নিরাপত্তা আমরা নিশ্চিত করতে পারি। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার পর আনুষ্ঠানিকভাবে সব কিছু তুলে ধরা হবে বলে জানান মেয়র।

Skip to toolbar