না ফেরার দেশে ভাষা সৈনিক নিখিল সেন

৩:৪৬ অপরাহ্ণ | সোমবার, ফেব্রুয়ারি ২৫, ২০১৯ গুণীজন সংবাদ
nikhilsen

মশিউর দিপু, বরিশাল প্রতিনিধি: একুশে পদক প্রাপ্ত প্রতিথযশা নাট্যকার ও সংস্কৃতিজন নিখিল সেন (৮৭) আর নেই। আজ সোমবার (২৫ ফেব্রুয়ারী) দুপুর ১টার দিকে বার্ধক্যজনিত কারনে চি‌কিৎসাধীন অবস্থায় বরিশালের শের ই বাংলা চিকিৎসা মহাবিদ্যালয় হাসপাতালে তিনি পরলোক গমন করেন। মৃত্যুকালে তিনি ২ সন্তান রেখে গেছেন।

নিখিল সেন বাংলাদেশের একজন প্রতিথযশা নাট্যকার ও সংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব। তিনি একজন অভিনয় শিল্পী, আবৃতিশিল্পী, ভাষা সৈনিক, মুক্তিযোদ্ধা এবং রাজনীতিবিদ। আবৃত্তিতে অবদান রাখার জন্য ২০১৫ইং সালে শিল্পকলা পদক লাভ করেন তিনি।

নাটকে বিশেষ অবদান রাখার জন্য তিনি বাংলাদেশের সর্বোচ্চ বেসামরিক পুরস্কার একুশে পদক লাভ করেছেন। এছাড়াও ১৯৯৬ইং সালে শিল্পকলা একাডেমি সম্মাননা, ১৯৯৯ইং সালে বাংলাদেশ গ্রুপ থিয়েটার ফেডারেশন সম্মাননা ও ২০০৫ইং সালে শহীদ মুনীর চৌধুরী পুরস্কার পান তিনি।

নিখিল সেন ১৯৩১ইং সালের ১৬ এপ্রিল বরিশালের কলশ গ্রামে জন্ম গ্রহণ করেন। তার বাবার নাম যতীশ চন্দ্র সেনগুপ্ত ও মা সরোজিনী সেনগুপ্ত। তিনি বাবা মায়ের ১০ সন্তানের মধ্যে চতুর্থ।

নিখিল সেন মাধ্যমিক পাস করে উচ্চ শিক্ষার জন্য কলকাতা সিটি কলেজে ভর্তি হন। সেখান থেকে স্নাতক ডিগ্রী অর্জন করে আবার বরিশালে ফিরে আসেন। সিরাজের স্বপ্ন নাটকে সিরাজ চরিত্রে অভিনয় করার মধ্য দিয়ে নাট্যজীবন শুরু করেন নিখিল সেন। এরপর তিনি অনেক নাটকে অভিনয় করেছেন।

নিজেই দিক নির্দেশনা দিয়েছেন ২৮টি নাটকে। নিখিল সেন কমিউনিস্ট আন্দোলনে ভূমিকা রেখেছেন। ১৯৭১ইং সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধ শুরু হলে নিখিল সেন যুদ্ধে যোগদান করেন।