পাকিস্তানের এক চা বিক্রেতার কাণ্ড!

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- ভারত, পাকিস্তানের মধ্যকার যে কোন ইস্যুই যেব সহজে শেষ হবার নয়। কিছুদিন আগে পুলওয়ামায় ভারতীয় বাহিনীর ওপর আত্মঘাতি হামলা নিয়ে দুই দেশের মধ্যকার যুদ্ধ পরিস্থিতিতেও দেখা গেছে সেটি।

ভারতীয় দুটি বিমান ভূপাতিত করার পরদিন পাকিস্তানের এক টিভি চ্যানেলের সংবাদ পাঠক পর্দায় হাজির হয়েছে সেনাবাহিনীর পোশাক পরে। আবার ভারতীয় দল তাদের সেনাবাহিনীর অবদানকে স্মরণ করে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের একটি ম্যাচে মাঠে নেমেছিল সামরিক বাহিনীর ক্যাপ পরে।

ভারতীয় যে পাইলট বিমান ধ্বংস হওয়ার পর পাকিস্তানের হাতে আটক হয়েছিলেন তাকে নিয়েও উৎসাহের কমতি ছিলো না পাকিস্তানিদের মধ্যে। নিজেদের সেনাবাহিনীর এই কৃতিত্ব প্রচার করতে তারা নিয়েছিলেন একের পর এক কৌশল। যেমন- পাকিস্তানের সেনাবাহিনীর প্রকাশিত ভিডিওতে দেখা গেছে ভারতীয় পাইলট অভিনন্দন চা খাচ্ছেন আর বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দিচ্ছেন। এক পর্যায়ে তিনি চায়ের প্রশংসা করেন।

এই ঘটনার পর ফেসবুক টুইটারসহ বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হয়েছে একটি ছবি যেখানে দেখা গেছে পাকিস্তান বিমান বাহিনীর অফিসার্স মেসের একটি ক্যাশমেমো। যাতে এক কাপ চায়ের বিল করা হয়েছে। কিন্তু টাকার অঙ্কের জায়গায় লেখা হয়েছে একটি ভরতীয় মিগ-২১ যুদ্ধবিমান। অর্থাৎ পাকিস্তানের এক কাপ চায়ের দাম ভারতের একটি যুদ্ধবিমান।

এসব বিষয় নিয়ে আলোচনা-সমালোচনার শেষ নেই। এরই মাঝে এবার দেখা গেল আরো অদ্ভূত এক কাণ্ড। পাকিস্তানের ফুটপাতের এক চা বিক্রেতা তার দোকানের সাইবোর্ডে ব্যবহার করেছেন পাইলট অভিনন্দনের ঘটনা। ফুটপাতের ওই চায়ের দোকানটি এক বৃদ্ধের। দোকানটির নাম ‘খান টি স্টল’।

বৃদ্ধ চা বিক্রেতা তার দোকানের সাইনবোর্ডে চা পানরত ভারতীয় পাইলটের ছবি দিয়ে সাথে উর্দুতে লিখেছেন ‘চা- যা শত্রুকেও বন্ধু বানায়’।

Sharing is.

Share on facebook
Share with others
Share on google
Share On Google+
Share on twitter
Share On Twitter
  • You May Also Like:
  • Top Views