বিএনপির নেতাদের উদ্দেশে যা বললেন হানিফ

১০:৩৫ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, মার্চ ১৫, ২০১৯ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর :: বিএনপি নেতাদের উদ্দেশে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ বলেছেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) নির্বাচন হয়েছে। নির্বাচিত প্রতিনিধিদের স্বাধীনভাবে কাজ করার সুযোগ দিন। আপনারা বাইরে থেকে সুড়সুড়ি ও উসকানি দিয়ে কোনো ফায়দা পাবেন না। দয়া করে এগুলো বন্ধ করুন।

শুক্রবার বিকেলে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউ আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে তিনি এ কথা বলেন। ১৫ মার্চ ‘কৃষক হত্যা দিবস’ উপলক্ষে সেখানে আলোচনা সভার আয়োজন করে বাংলাদেশ কৃষকলীগ।

মাহবুবউল আলম হানিফ বলেন, ‘বাংলাদেশের জনগণ থেকে প্রত্যাখান হয়ে বিএনপির আজকে কিছু নেই। তাদের হাতে রাজনীতির আর কিছু নেই। তাদের দলের দুই শীর্ষ নেতার একজন এতিমের টাকা আত্মসাত করে দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে কারাগারে। আরেকজন দুর্নীতি ও সন্ত্রাসের কারণে যাবজ্জীবন দণ্ডপ্রাপ্ত হয়ে বিদেশে পলাতক রয়েছে। যে দলের দুই শীর্ষ নেতাই দুর্নীতি ও সন্ত্রাসের কারণে দণ্ডপ্রাপ্ত তাদের রাজনীতি করার কোনো অধিকার থাকতে পারে বলে জাতি মনে করে না।’

আওয়ামী লীগ নেতা হানিফ বলেন, ‘এখন সর্বশেষ ডাকসু নির্বাচন হলো। কিন্তু সেই নির্বাচন নিয়ে তারা ইনিয়ে-বিনিয়ে কথা বলার চেষ্টা করছেন। আমরা বারবার বলেছি, এই নির্বাচনের সঙ্গে জাতীয় নির্বাচনের প্রতিফলন নয়। আর তাই যদি হয়, তাহলে বিএনপির প্রতি জনমত ও আস্থা তলানিতে এসে গেছে। কারণ তাদের প্রার্থী শুধু পরাজিতই হয় নাই, লজ্জাজনক ভোট পেয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘আমার দেশের জনগণ এখন সচেতন। সচেতন জনগণ বিএনপি নামক অশুভ জঙ্গি সংগঠনের দিকে আর কখনো যাবে না। এই অপশক্তি বাংলাদেশ থেকে চিরতরে নির্মূল হয়ে যাবে বলে আমরা বিশ্বাস করি।’

বাংলাদেশ কৃষক লীগের সভাপতি মোতাহার হোসেন মোল্লা অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন। সংগঠনের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সমীর চন্দ্র দে’র পরিচালনায় সভায় বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলির সদস্য মতিয়া চৌধুরী, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, কৃষক লীগের সহ-সভাপতি খান আলতাফ হোসেন ভুলু, শেখ জাহাঙ্গীর আলম, সাধারণ সম্পাদক খন্দকার শামসুল হক রেজা, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক উম্মে কুলসুম স্মৃতি, সাংগঠনিক সম্পাদক বিশ্বনাথ সরকার বিটু, সাখাওয়াত হোসেন সুইটসহ অনেকে।