স্তন ক্যান্সারের আগাম আভাস দেবে এই অন্তর্বাস!

২:৩৩ অপরাহ্ণ | বুধবার, মার্চ ২০, ২০১৯ আপনার স্বাস্থ্য

আপনার স্বাস্থ্য ডেস্ক :: সারা বিশ্বের লক্ষ লক্ষ নারী মারণরোগ স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত। যত দিন যাচ্ছে ক্রমশই বৃদ্ধি পাচ্ছে আক্রান্তের সংখ্যা। ত্রিশ থেকে চল্লিশ বছর বা এর চেয়েও কম বয়সীরা আক্রান্ত হচ্ছেন এই মারণরোগে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বা (who)-এর সমীক্ষা অনুযায়ী, প্রতি বছর প্রায় তেরো লক্ষ আশি হাজার মহিলা নতুন করে স্তন ক্যানসারে আক্রান্ত হচ্ছেন এবং চার লক্ষ আটান্ন হাজার মহিলার এই রোগে মৃত্যু হচ্ছে।

এমনিতে স্তন ক্যানসার শনাক্ত করার জন্য বিকিরণের ক্ষতিকর পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ার আশঙ্কায় ম্যামোগ্রাম টেস্টের পরামর্শ দেন চিকিত্‍সকরা। সম্প্রতি একদল ভারতীয় বিজ্ঞানী স্তন ক্যানসার শনাক্ত করার বিকল্প উপায় আবিষ্কার করেছেন। কেরালার সেন্টার ফর মেটেরিয়ালস ফর ইলেকট্রনিকস টেকনোলজি (সি-মেট) একটি যন্ত্র আবিষ্কার করেছে। যন্ত্রটি হল একটি অন্তর্বাস। এই অন্তর্বাসে রয়েছে এমন একটি সেন্সর, যেটি থার্মাল ইমেজিংয়ের মাধ্যমে স্তনে ক্যানসার আক্রান্ত কোষকে শনাক্ত করতে পারে।

সি-মেট-এর বিজ্ঞানীদের দাবি, এই অন্তর্বাসে রেডিয়েশনের ব্যাপারও নেই, এ ক্ষেত্রে ত্বকের তাপমাত্রাই স্তন ক্যানসার শনাক্ত করে। এই অন্তর্বাসটির দাম চারশো-পাঁচশো টাকা। বাণিজ্যিকীকরণ হলে এর দাম আরও কমবে বলে মনে করা হচ্ছে।

এই প্রকল্পের চিফ ইনভেস্টিগেটিং অফিসার এই যন্ত্র উদ্ভাবনের জন্য ডঃ এ সীমা সম্প্রতি
দেশটির রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে নারীশক্তির পুরস্কার পেয়েছেন।

সীমা জানিয়েছেন, ছয়জনের বিশেষ একটি দল ২০১৪ সাল থেকে দীর্ঘ চার বছরের গবেষণার ফল থার্মাল ইমেজিং সেন্সর যুক্ত এই অন্তর্বাস। ইতিমধ্যেই এ১১৭ রোগী ও ২০০ স্বেচ্ছাসেবীর উপরে এটি পরীক্ষা করা হয়েছে। সঠিকভাবে বাণিজ্যিকীকরণ হলে ভবিষ্যতে এই অন্তর্বাসটির দাম পঞ্চাশ টাকার বেশি হওয়ার কথা নয়। আশা করা হচ্ছে পরবর্তী এক বছরের মধ্যেই এটি বাণিজ্যিক ভাবে ভারতের সর্বত্র আরও কম দামে পাওয়া যাবে।