সংবাদ শিরোনাম
ব্যস্ত সময় পার করছেন সাভার ও আশুলিয়ার প্রতিমা শিল্পীরা | অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী | পরকীয়া প্রেমিক নাতির পুরুষাঙ্গ কেটে দিলেন দাদি! | মাগুরায় যুবলীগ নেতার পিতার উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন | শিক্ষা দিবসে ইবি ছাত্র ইউনিয়নের র্যালি | আট দিনের আন্দোলনেও সুরাহা মেলে নি বাকৃবি শিক্ষার্থীদের | প্রকল্পের পণ্য কিনতে দাম নির্ধারণে সর্তক হওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর | বাকৃবিতে জিটিআইয়ে কর্মকর্তাদের বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপনী | নেত্রী পদে থাকতে বলেন থাকব, না বললে থাকব না: কাদের | প্রত্যেক বিভাগীয় শহরে হবে পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার হাসপাতাল |
  • আজ ২রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

যত্নের অভাবে রোগা হয়ে যাচ্ছে তৈমুর!

৬:১৮ অপরাহ্ণ | বুধবার, মার্চ ২০, ২০১৯ বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক- বলিউডের স্টার কিডদের তালিকায় বর্তমানে অন্যতম জনপ্রিয় মুখ হচ্ছে তৈমুর আলি খান। জন্মের পর থেকেই তৈমুর লাইমলাইটে। এই খুদের এক একটা পদক্ষেপের নজর রাখেন পাপারাত্‍জিরা। জন্মানোর পর থেকে যত ছবি সইফ আলি খান ও করিনার কাছে রয়েছে,তার থেকে অনেক বেশি ছবি রয়েছে পাপারাত্‍জিদের কাছে। তাই কখন সে মোটা হচ্ছে কখন রোগা কখন চুল বড় হচ্ছে কখন ছোট এই সবকিছুর প্রতি নজর রয়েছে সকলের।

সোশ্যাল মিডিয়ায় রয়েছে তৈমুরের হাজারও ফ্যান পেজ। ফলে নেটিজেনদের নজরে রয়েছেন চব্বিশ ঘন্টা। তাই তাদের দাবি করিনার যত্নের অভাবে অভুক্ত রয়ে যেতে পারে তৈমুর। মা-এর সামনে আবার এই মন্তব্য তুলে ধরেছেন আরবাজ খান।

সম্প্রতি একটি টক শোতে সোশ্যাল মিডিয়ায় নেটিজেনদের বলা নানা মন্তব্য পড়ে শোনানো এই শো-এর একটি বিশেষ চমক। আর সেই শোতে করিনার উপস্থিতিতেও এমনটা হতে দেখা গেল। যেখানে করিনার বয়স, বিকিনি পরা থেকে শুরু করে তৈমুরের যত্ন নেওয়ার বিষয় নানা কুরুচিকর মন্তব্য পড়ে শোনান আরবাজ।

তবে চুপ করে থাকার মেয়ে বেবো নন। তাই এই ধরনের কথার মোক্ষম জবাব দিলেন তিনি। নেটিজেনদের উদ্দেশ্যে বললেন,’আপনাদের বেচারা তৈমুর মোটেই বেচারা নয়। আর ও খালি আমাদের নয়, চব্বিশ ঘন্টা কারওর না কারওর যত্নে থাকে। আর রোগা? তৈমুর এখন আগের থেকে তুলনামূলক বেশি খায়। মোটাও লাগে এখন ছবিতে।’

এছাড়াও ছেলের অতিরিক্ত লাইমলাইটে আসা নিয়ে মুখ খোলেন অভিনেত্রী। তিনি বলেন,’এখন আমরা তৈমুরকে নিয়ে বাইরে গেলে সবাই আমাদের ডাকার বদলে তৈমুরকে ডাকতে থাকে। আমি যেমন একদিকে ভাবি যে তারকা সন্তান হিসেবে আগে থেকে জীবনযাপনে অভ্যস্ত হয়ে যাওয়া উচিত। আবার কিছু সময় মনে হয়,এত তাড়াতাড়ি এতটা লাইমলাইটে আসার প্রয়োজন ছিল না।’