না ফেরার দেশে শিল্পী শাহনাজ রহমতুল্লাহ

১০:৫৮ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, মার্চ ২৪, ২০১৯ বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক- দেশের বরেণ্য সংগীতশিল্পী শাহনাজ রহমতউল্লাহ আর নেই (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। শনিবার (২৩ মার্চ) রাত সাড়ে ১১টার দিকে রাজধানীর বারিধারায় নিজ বাসায় মারা যান তিনি।

তাঁর পরিবারের পক্ষ থেকে খবরটি নিশ্চিত করেছেন নৃত্যশিল্পী ডলি ইকবাল।

মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। তিনি স্বামী, এক ছেলে ও এক মেয়ে রেখে গেছেন। স্বামী মেজর (অব.) আবুল বাশার রহমতউল্লাহ ব্যবসায়ী, মেয়ে নাহিদ রহমতউল্লাহ থাকেন লন্ডনে আর ছেলে এ কে এম সায়েফ রহমতউল্লাহ যুক্তরাষ্ট্রের এক বিশ্ববিদ্যালয় থেকে এমবিএ করে এখন কানাডায় থাকেন।

এদিকে কণ্ঠশিল্পী ফাহমিদা নবী তাঁর ব্যক্তিগত ফেসবুক ওয়ালে লিখেছেন, একজন প্রকৃত শ্রেষ্ঠ কিংবদন্তি চলে গেলেন। আল্লাহতায়ালা তাঁকে সম্মানের সঙ্গে নিয়ে গেলেন। কিছু বুঝতে পারছি না, কষ্ট হচ্ছে। যার গান শুনে গান গেয়ে বড় হয়েছি, যার সরলতা গানে পেয়েছি তাকে হারিয়েছি একটু আগে!’

পরিবারের সদস্যরা জানিয়েছেন, রোববার (২৪ মার্চ) জোহরের নামাযের পর বারিধারা পার্ক মসজিদে শাহনাজ রহমতুল্লাহর জানাজা হবে। পরে বনানীর সামরিক কবরস্থানে তাকে দাফন করা হবে।

গুণী এই সংগীতশিল্পীর জন্ম ২ জানুয়ারি ১৯৫২ সালে। বাবা এম ফজলুল হক ও মা আসিয়া হক। শাহনাজ রহমতুল্লাহ দেশাত্মবোধক গান গেয়ে ব্যাপক জনপ্রিয়তা অর্জন করেন। তাঁর উল্লেখযোগ্য গানগুলোর মধ্যে রয়েছে—এক নদী রক্ত পেরিয়ে, একবার যেতে দে না আমার ছোট্ট সোনার গাঁয়ে, একতারা তুই দেশের কথা বলরে‌ এবার বল, প্রথম বাংলাদেশ আমার শেষ বাংলাদেশ, আমায় যদি প্রশ্ন করে, যে ছিল দৃষ্টির সীমানায়।

এসব গানের মাঝে প্রথম তিনটি গান বিবিসির একটি জরিপে সর্বকালের সেরা বিশটি বাংলা গানের তালিকায় স্থান পায়। ১৯৯২ সালে তিনি একুশে পদক এবং ১৯৯০ সালে ছুটির ফাঁদে চলচ্চিত্রের জন্য শ্রেষ্ঠ নারী কণ্ঠশিল্পী হিসেবে বাংলাদেশ জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার লাভ করেন।

Loading...