জাহিদের শপথগ্রহণ নিয়ে ঠাকুরগাঁও বিএনপিতে তোলপাড়!

৬:০৮ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, এপ্রিল ২৫, ২০১৯ রংপুর

কামরুল হাসান, ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি :: বিএনপি নেতা জাহিদুর রহমানের শপথ গ্রহণ করাকে কেন্দ্র করে তার নিজ এলাকা ঠাকুরগাঁওয়ে মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দিয়েছে। বিএনপির স্থানীয় নেতারা বলছেন, সে দলের সাথে প্রতারণা করেছেন। আওয়ামী লীগ নেতারা বলছেন, জনগণের প্রতি সম্মান দেখিয়েছেন তিনি। জাহিদের এলাকার ভোটাররা তার সংসদে যাওয়ার সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়েছেন।

বৃহস্পতিবার দুপুরে সংসদ ভবনে তার শপথ গ্রহণের পর দলের হাই কমান্ড থেকে তাকে বহিষ্কার করা হবে বলে জানানো হয়। তার সাথে সুর মিলিয়ে ঠাকুরগাঁও জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমান বলেন, জাহিদ শুধু বিএনপির সাথেই নয়, সে জনগণের সাথেও প্রতারণা করেছে। তিনি দলের কথা অমান্য করে এই শপথ নিয়েছেন। আমার মহাসচিবের সাথে যোগাযোগ করেছি। তাকে খুব শিগগিরই দল থেকে বহিস্কৃত করা হবে।

জাহিদের শপথগ্রহণ করায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সাল আমিন। তিনি বলেন, তার এই শপথ গ্রহণ আমাদের কাছে লজ্জাকর বিষয়। এটি দলীয় সিদ্ধান্তের বাইরে। আমরা কোনো দিন ভাবিনি, সে দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে এই কাজ করবে। আমরা এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি। সেই সাথে কেন্দ্রের কাছে সুপারিশ করব- তাকে যেন বহিষ্কার করা হয়। কারণ তিনি আমাদের নেতাকর্মীদের হতাশ করেছেন। আমাদের ঐক্যের মধ্যে ফাটল ধরানোর চেষ্টা করেছেন।

তবে জাহিদুর রহমানের শপথ নেওয়াকে সাধুবাদ জানিয়েছেন জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট মোস্তাক আলম টুলু। তিনি বলেন, জাহিদুর রহমান জনগণের রায়ের প্রতি সন্মান রেখেছেন। আমার আশা করি, তার মাধ্যমে পীরগঞ্জের (ঠাকুরগাঁও-৩ সংসদীয় আসন) মানুষের উন্নয়ন হবে।

সংসদে যোগ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়ায় জাহিদের প্রশংসা করেছেন স্থানীয় বেশিরভাগ ভোটার। স্থানীয় কামাল উদ্দিন বলেন, আমার জাহিদুর রহমানকে ভোট দিয়েছি আমাদের এলাকার উন্নয়নের জন্য। কারণ আমার চাই- উন্নয়ন। আজ আমরা আনন্দিত যে, তিনি শপথ গ্রহণ করেছেন।

জানে আলম নামের আরেক ভোটার বলেন, এই শপথ নেওয়াতে আমার অনেকটাই আনন্দিত। দীর্ঘদিন ধরেই আমাদের এলাকায় তেমন কোনো উন্নয়ন নেই। আশা করি, এবারে হয়তো আমাদের এলাকার উন্নয়ন হবে।