সংবাদ শিরোনাম
ব্যস্ত সময় পার করছেন সাভার ও আশুলিয়ার প্রতিমা শিল্পীরা | অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী | পরকীয়া প্রেমিক নাতির পুরুষাঙ্গ কেটে দিলেন দাদি! | মাগুরায় যুবলীগ নেতার পিতার উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন | শিক্ষা দিবসে ইবি ছাত্র ইউনিয়নের র্যালি | আট দিনের আন্দোলনেও সুরাহা মেলে নি বাকৃবি শিক্ষার্থীদের | প্রকল্পের পণ্য কিনতে দাম নির্ধারণে সর্তক হওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর | বাকৃবিতে জিটিআইয়ে কর্মকর্তাদের বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপনী | নেত্রী পদে থাকতে বলেন থাকব, না বললে থাকব না: কাদের | প্রত্যেক বিভাগীয় শহরে হবে পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার হাসপাতাল |
  • আজ ২রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

২০২৪-এর মধ্যে চাঁদের মাটিতে প্রথম পা কোন মহাকাশচারিণীর! জানাল নাসা

১:১৬ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, মে ২, ২০১৯ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক :: পরবর্তী চন্দ্রাভিযানের জন্য জোরকদমে প্রস্তুতি শুরু করেছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা দ্য ন্যাশনাল অ্যারোনটিকস অ্যান্ড স্পেস অ্যাডমিনিস্ট্রেশন অর্থাত্‍ নাসা। সম্প্রতি নাসার পক্ষ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে আর পাঁচ বছরের মধ্যেই চাঁদের মাটিতে পা রাখতে চলেছেন এক মহিলা মহাকাশচারী।

সম্প্রতি কলোরাডোয় অনুষ্ঠিত হওয়া স্পেস ফাউন্ডেশনের একটি স্পেস সিমপোসিয়ামে নাসার প্রশাসনিক কর্তা জিম বার্ডেনস্টাইনের কথায়, আগামী পাঁচ বছরের মধ্যে একজন মার্কিন মহিলা প্রথম পা রাখতে চলেছেন চাঁদের মাটিতে। পরিকল্পনাটি শুরু হয়েছিল বহুবছর আগে থেকেই, কিন্তু পর্যাপ্ত বাজেট অনুমোদন না হওয়ায় এই পথে বিশেষ এগোনো যাচ্ছিল না। তবে সময়ের পরিবর্তন হলেও পরিকল্পনায় কোনও বদল আসেনি। নাসার প্রশাসনিক কর্তা জিম আরও জানান, ২০২০ সালের মধ্যে এই মিশনের জন্য আরও তহবিল যোগ করার প্রচেষ্টা চালানো হচ্ছে।

তবে কেন পুনরায় চন্দ্রাভিযানে যেতে চায় নাসা? এর উত্তরে বার্ডেনস্টাইন জানায়, ২০১০-এর দশকে নাসার মঙ্গল অভিযানের পরিকল্পনাকে সফল করতে সাহায্য করবে এই চন্দ্রাভিযান। তিনি আরও জানান যে, চাঁদের বুকে পাড়ি দিয়ে আসার পর হয়তো মঙ্গল অভিযান নিয়ে কোনও নতুন দিশা পাওয়া যেতে পারে। তাছাড়া, চন্দ্রপৃষ্ঠে যে অপার সম্পদের ভান্ডার রয়েছে, সেগুলিকেও কাজে লাগাতে চায় নাসা। জানা গিয়েছে চাঁদে যে কয়েক মিলিয়ন টন হাইড্রোজেন এবং অক্সিজেন রয়েছে, তা দিয়ে রকেটের জ্বালানি তৈরি করা সম্ভব। সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে ২০২৪ সালের মধ্যেই চাঁদের বুকে পা রাখবেন প্রথম মহিলা নভোচারী।