বিয়ের আসরে পাবজি খেলায় ব্যস্ত বর! ভিডিও ভাইরাল

১২:০৬ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, মে ২, ২০১৯ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি ডেস্ক- বর-কনে সেজেগুজে বসে আছে। আলো ঝলমলে বিয়েবাড়িতে এসে পড়েছেন অতিথি-অভ্যাগতরাও। সবই আমাদের চিরচেনা দৃশ্য। কিন্তু এ কী? বরের যে মন নেই সেদিকে! সে ব্যস্ত অন্য কাজে। তার দু’হাত এবং সমস্ত মনঃসংযোগ হাতের ফোনের দিকে।

সে খেলে চলেছে পাবজি। যে খেলার পুরো নাম ‘প্লেয়ারআননোন্স ব্যাটলগ্রাউন্ড’। সারা পৃথিবীতে এই গেমটিকে ঘিরে গণ-হিস্টিরিয়া কোন পর্যায়ে পৌঁছেছে, তারই যেন এক নিদারুণ উদাহরণ এই ভিডিও। স্বাভাবিক ভাবেই ভিডিওটি এই মুহূর্তে ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়।

পাবজির জনপ্রিয়তা যে সাংঘাতিক পর্যায়ে পৌঁছেছে সেটা নতুন খবর নয়। সম্প্রতি ভারতের গুজরাতে খেলাটিকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করে দেওয়া হয়েছে। নেপালেও নিষিদ্ধ পাবজি। এই ভিডিও যেন প্রতীকী। যা দেখে স্পষ্ট বোঝা যাচ্ছে, কেন খেলাটিকে নিয়ে এত সমালোচনা। কেউ নিজেরই বিয়ের আসরে সব ভুলে বুঁদ হয়ে যেতে পারে- এমনই ম্যাজিক এই খেলায়।

ভিডিওটিতে দেখা যাচ্ছে, বর খেলায় মত্ত। পাশে বসে নববধূ। চোখেমুখে প্রবল অস্বস্তি। কিন্তু বরের সেদিকে হুঁশ নেই। এমনকী, এক অতিথি তার হাতে উপহার দিতে চাইলে বর সেই উপহার ধরা হাতকে ধাক্কা মেরে সরিয়ে দিচ্ছে! খেলায় কোনও বাধা পড়ুক, সে চায় না!

ভিডিও শেয়ারিং প্ল্যাটফর্ম টিক টক-এ এই ভিডিও প্রথমে আপলোড করা হয়েছিল। তারপর সেখান থেকে ছড়িয়ে পড়ে ফেসবুক ও অন্যত্রও। ফেসবুকে কেবল ‘৮কে ওয়ালপেপার্স’ পেজেই সেটা দেখে ফেলেছেন ৫ লাখেরও বেশি মানুষ! তলায় জমা পড়েছে মজাদার সব কমেন্ট।

কিন্তু ভিডিওটি কি সত্যি? নাকি স্রেফ মজা করার জন্যই বানানো? সেকথা জানা যায়নি। জানা যায়নি এই বিয়ের আসরের স্থান বা বর-কনে কোথাকার সে সম্পর্কে কোনও তথ্যও।

তবে সত্যি-মিথ্যে যাই হোক, ভিডিওটিতে পাবজির প্রতি যে আসক্তির ছবি ফুটে উঠেছে তা ভুল নয়। এমন অভিযোগ এই খেলাটি সম্পর্কে আগেও উঠেছে। সম্পর্তি সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে এক সত্রী তাঁর স্বামীর বিরুদ্ধে ডিভোর্সের মামলা করেছেন। অভিযোগ, স্বামী তাঁকে পাবজি খেলতে দিচ্ছে না।

২০১৭ সালের ২০ ডিসেম্বর খেলাটি আত্মপ্রকাশ করে। এখনও পর্যন্ত ২০ কোটিরও বেশি ডাউনলোড করা হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ার এক সংস্থার তৈরি এই গেমটি। দৈনিক ৩ কোটি মানুষ সারা পৃথিবীতে খেলে চলেছেন এই খেলা।

ভিডিও দেখুন এখানে-