সংবাদ শিরোনাম
বঙ্গবন্ধু-প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুর: ফাইনের পর সুব্রত গ্রেপ্তার | হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের খোঁজ-খবর নিলেন ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ | পুরুষদের নানাভাবে নির্যাতন করছে নারীরা: হিরো আলম | রাহুল গান্ধীকে ঢুকতে দেয়া হয়নি কাশ্মীরে, বিমানবন্দর থেকেই ফেরত | রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে প্রত্যাবর্তন করাই উত্তম: তাজুল ইসলাম | দিনে দুপুরে গুলশানের কমিউনিটি সেন্টারে ছাত্রলীগের হামলা (ভিডিও) | ৬ কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী | ফরিদপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১১, আহত ২৫ | বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাংচুর: ছাত্রলীগ নেতা ফাইন গ্রেফতার | মিরপুরে ফুটপাত দখল করে চলছে রমরমা বাণিজ্য |
  • আজ ৯ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ভোট চাইতে গিয়ে ফের সপাটে চড় খেলেন কেজরিওয়াল

১:১৪ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, মে ৫, ২০১৯ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: সময়টা ভাল যাচ্ছে না ভারতের দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের। কয়েকদিন আগেই তাঁর বিরুদ্ধে আইনি লড়াই শুরু করেছে বিজেপি। রয়েছে একাধিক অপরাধমূলক অভিযোগ। এমনই পরিস্থিতিতে ভোট চাইতে বেরিয়ে সপাটে চড় খেলেন আম আদমি পার্টি’র প্রধান।

শনিবার দিল্লির মোতিনগর এলাকায় লোকসভা ভোটের জন্য রোড শো’র আয়োজন করেন কেজরি। হুডখোলা জিপে হাসিমুখে ভোটারদের মন জয়ের উদ্দেশ্যে হাত নাড়ছিলেন তিনি। যেন বলতে চাইছেন, ‘আমি এখনও আম আদমি, ভোট আমাকেই দিন।’ তারপর যা ঘটল তা হয়তো ‘মাফলার ম্যান’ ভাবতেই পারেননি। আচমকা গাড়িতে উঠে কেজরিওয়ালের গালে সপাটে চড় বসিয়ে দিল এক যুবক। এহেন আক্রমণে হতভম্ব হয়ে যান আপ প্রধান।

ঘটনার পর অভিযুক্ত যুবককে হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ। তাঁকে জেরা করা হচ্ছে। কী এই আক্রমণের উদ্দেশ্য তা জানতে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। এদিকে নিরাপত্তায় গাফিলতির অভিযোগ তুলে বিরোধীদের প্রতি আঙুল তুলেছে আপ। নাম না করে যে বিজেপিকেই নিশানা করছে দলটি তা স্পষ্ট। টুইট করে আপ জানায়, ‘রোড শো চলাকালীন দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়ালের উপর হামলা হয়। হামলা চালিয়ে দিল্লিতে আম আদমি পার্টিকে থামাতে পারবে না তারা।’ এই ঘটনায় কেজরির পাশে দাঁড়িয়ে বিজেপির বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে জেড ক্যাটেগরির নিরাপত্তা পান কেজরিওয়াল। ২৪ ঘণ্টা তাঁর নিরাপত্তায় মোতায়েন থাকে ২৫ জন নিরাপত্তারক্ষী। তারপরও এহেন হামলার ঘটনায় আপ প্রধানের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিয়ে উঠছে প্রশ্ন। উল্লেখ্য, এর আগে একাধিকবার কেজরিওয়ালকে লক্ষ্য করে চড়, জুতো ছোঁড়া, কালি ছোড়ার মতো ঘটনা ঘটেছে। এমনকী তাঁর অফিসে মরিচের গুঁড়ো নিয়েও হামলা চালায় এক ব্যক্তি।