দুবার ফোন করলেও মমতার সাথে কথা বলতে পারলেন না মোদি

৯:৩৭ অপরাহ্ণ | সোমবার, মে ৬, ২০১৯ আন্তর্জাতিক
modi

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ঘূর্নিঝড় ‘ফণী’র পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে কলকাতার মূখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে দুবার ফোন করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। কিন্তু মমতা নাকি ফোনই ধরেন নি। বিষয়টি নিয়ে এক নির্বাচনী সমাবেশে মমতাকে কটাক্ষ করে মোদি বলেছেন, ‘ঘূর্ণিঝড় নিয়ে রাজনীতি করছেন মমতা।’

জানা যায়, পশ্চিমবঙ্গের পূর্ব মেদিনীপুর জেলার হলদিয়ায় নির্বাচনী সমাবেশে বক্তৃতার সময় কলকাতার মূখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ফণী পরিস্থিতি সম্পর্কে জানতে দুবার ফোন করার বিষয়টি তুলে ধরেন তিনি। মোদি বলেন,‘ঘূর্ণিঝড় নিয়ে রাজনীতি করার চেষ্টা করেছেন স্পিডব্রেকার দিদি। ফোনে তার সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেছি। এত অহংকার আমার সঙ্গে কথা বলেননি দিদি।’

মোদি বলেন, ‘আমি অপেক্ষা করছিলাম। ভেবেছিলাম, দিদি বোধহয় ফোন করবেন। আরও একবার ফোন করেছি। পশ্চিমবাংলার অবস্থা নিয়ে মমতা দিদির সঙ্গে কথা বলার চেষ্টা করেছি। দ্বিতীয়বারও কথা বলেলনি।’ ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, ‘নিজের রাজনীতি নিয়ে কত চিন্তা দিদির! পশ্চিমবঙ্গের লোকেদের নিয়ে তিনি চিন্তিত নন। মানুষকে নিয়ে রাজনীতি করার এই অভ্যাস দেশের লোকসান করেছে। স্পিডব্রেকার দিদির এই স্বভাবের কারণে বাংলার উন্নয়নে ব্রেক লেগেছে।

তিনি আরও বলেন, ‘এখানকার প্রশাসনের কথা বলে বিষয়টা বুঝতে চেয়েছিলাম, ভারত সরকার কী সহযোগিতা করতে পারে, তা জানতে চেয়েছিলাম। দিদি এই রাজনীতি করলেও পশ্চিমবাংলার লোকেদের আশ্বস্ত করছি, পূর্ণ শক্তিতে এখানকার জনতার সঙ্গে রয়েছে। সব ধরনের সহযোগিতা করবো।