সংবাদ শিরোনাম
বঙ্গবন্ধু-প্রধানমন্ত্রীর ছবি ভাঙচুর: ফাইনের পর সুব্রত গ্রেপ্তার | হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীদের খোঁজ-খবর নিলেন ইঞ্জিনিয়ার মোশারফ | পুরুষদের নানাভাবে নির্যাতন করছে নারীরা: হিরো আলম | রাহুল গান্ধীকে ঢুকতে দেয়া হয়নি কাশ্মীরে, বিমানবন্দর থেকেই ফেরত | রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে প্রত্যাবর্তন করাই উত্তম: তাজুল ইসলাম | দিনে দুপুরে গুলশানের কমিউনিটি সেন্টারে ছাত্রলীগের হামলা (ভিডিও) | ৬ কোটি টাকার উন্নয়ন প্রকল্পের উদ্বোধন করলেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী | ফরিদপুরে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ১১, আহত ২৫ | বঙ্গবন্ধুর ছবি ভাংচুর: ছাত্রলীগ নেতা ফাইন গ্রেফতার | মিরপুরে ফুটপাত দখল করে চলছে রমরমা বাণিজ্য |
  • আজ ৯ই ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

অপহরণ করে ঘরে আটকে রেখে ৫১ দিন ধরে গণধর্ষণ!

১২:৫৯ অপরাহ্ণ | বুধবার, মে ৮, ২০১৯ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক :: ১৬ বছরের নাবালিকাকে ৫১ দিন ঘরে আটকে রেখে গণধর্ষণ!‌ এমনই নারকীয় কাণ্ড ঘটেছে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের নয়ডায়।

কলকাতার সংবাদমাধ্যম জানাচ্ছে, দুই প্রতিবেশী ২ মার্চ নাবালিকাকে মামুরা থেকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এরপর ২২ এপ্রিল পর্যন্ত লাগাতার ওই নাবালিকাকে গণধর্ষণ করে। দুই অপহরণকারীর সঙ্গে ছিল আরও একজন। অবশেষে ২২ এপ্রিল পালাতে সক্ষম হয় ওই নাবালিকা। বাড়িতে ফিরে মা-বাবাকে সমস্ত ঘটনা জানায়।

যদিও মা-বাবার অভিযোগ, পুলিশ প্রথমে তাঁদের অভিযোগ নিতে চায়নি। পরে অবশ্য এফআইআর দায়ের করা হয়। তদন্তে নেমে পুলিশ জানিয়েছে, নাবালিকাটি অশিক্ষিত। তাই সে জানাতে পারেনি কোথায় তাঁকে অপহরণকারীরা নিয়ে গিয়েছিল। যদিও দুই অভিযুক্তের নাম নাবালিকা পুলিশকে জানিয়েছে।

নাবালিকার বাবা একটি কারখানার কর্মী। তাঁর অভিযোগ অনুযায়ী মধ্যপ্রদেশের ছাতারপুরের ছোটু ও মাহোবার সুরজ তাঁদের বাড়িতে এসেছিল। এরপরই মার্চের প্রথম সপ্তাহে তারা নাবালিকাকে অপহরণ করে।

অভিযোগে বলা হয়েছে, ২ মার্চ নাবালিকাকে অপহরণ করা হয়েছিল। একটি ঘরে ২ মার্চ থেকে ২২ এপ্রিল পর্যন্ত তাঁকে আটকে রাখা হয়। চলে গণধর্ষণ। ঘটনার কথা বললে প্রাণে মারার হুমকিও দেওয়া হয় নাবালিকাকে। অবশেষে ২২ এপ্রিল কোনওমতে সেখান থেকে পালিয়ে আসে সে।’‌

মেয়েটির বাবা জানিয়েছেন, ‘বিধ্বস্ত অবস্থায় বাড়ি ফিরেছিল মেয়ে। এরপরই পুলিশে যাই আমরা। প্রথমে অভিযোগ না নিলেও ৩০ এপ্রিল পুলিশ তদন্ত শুরু করে। মঙ্গলবারই নাবালিকার মেডিকেল টেস্ট হয়েছে। অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে পুলিশ।