সংবাদ শিরোনাম
ব্যস্ত সময় পার করছেন সাভার ও আশুলিয়ার প্রতিমা শিল্পীরা | অত্যাধুনিক প্রযুক্তির ‘রাজহংস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী | পরকীয়া প্রেমিক নাতির পুরুষাঙ্গ কেটে দিলেন দাদি! | মাগুরায় যুবলীগ নেতার পিতার উপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন | শিক্ষা দিবসে ইবি ছাত্র ইউনিয়নের র্যালি | আট দিনের আন্দোলনেও সুরাহা মেলে নি বাকৃবি শিক্ষার্থীদের | প্রকল্পের পণ্য কিনতে দাম নির্ধারণে সর্তক হওয়ার নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর | বাকৃবিতে জিটিআইয়ে কর্মকর্তাদের বুনিয়াদি প্রশিক্ষণ কর্মশালার সমাপনী | নেত্রী পদে থাকতে বলেন থাকব, না বললে থাকব না: কাদের | প্রত্যেক বিভাগীয় শহরে হবে পূর্ণাঙ্গ ক্যান্সার হাসপাতাল |
  • আজ ২রা আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

রোজা রেখে রাতে খেললেন নবী-রশিদ, ধাওয়ানের বিস্ময় প্রকাশ

১০:০৪ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, মে ১০, ২০১৯ খেলা
dhawan

স্পোর্টস আপডেট ডেস্কঃ পবিত্র রমজান মাস শুরু হয়েছে। ক্রীড়া জগতের অনেক মুসলিম তারকাও এসময় রোজা রেখেই মাঠের লড়াইয়ে নামেন। সানরাজার্স হায়দ্রাবাদের দুই আফগান ক্রিকেটার মোহাম্মদ নবী ও রশিদ খান সারাদিন রোজা রেখে রাতে আইপিএলের এলিমিনেটর রাউন্ডের ম্যাচ খেলতে নেমেছিলেন। আর এতে বিস্ময় প্রকাশ করে তাদের প্রশংসায় ভাসিয়েছেন তাদের সাবেক সতীর্থ ও বর্তমানে দিল্লি ক্যাপিটালসের ওপেনার শিখর ধাওয়ান।

ম্যাচ শেষে টুইটারে ধাওয়ান লিখেছেন, ‘সবাইকে রমজানের শুভেচ্ছা। তাদের (রশিদ ও নবী) নিয়ে আমি গর্বিত। সারাদিন রোজা রেখে এবং এরপর ম্যাচ খেলা মোটেই সহজ নয়। কিন্তু তারা এটা করে দেখিয়েছে। দুজনেই তাদের দেশ এবং পুরো বিশ্বের জন্য অনুপ্রেরণা। তোমাদের শক্তি সবাইকে বড় স্বপ্ন দেখতে উৎসাহ যোগাবে। তোমাদের ওপর আল্লাহ’র রহমত বর্ষিত হোক।’

ধাওয়ান মনে করেন, পবিত্র রমজানে সারাদিন রোজা রেখে খেলা মোটেই সহজ কাজ নয়। ব্যাট হাতে ১৩ বলে ৩টি চার ও ১ ছক্কায় ২০ রান করেছেন ৩৪ বছর বয়সী নবী। বল হাতে ৪ ওভারে ২৯ রান খরচ করে কোনো উইকেট না পেলেও তার ইকোনমি রেট ছিল ৭.২৫।
অন্যদিকে ২০ বছর বয়সী রশিদ খান ব্যাট হাতে গোল্ডেন ডাক পেলেও বল হাতে ছিলেন দুর্দান্ত। ৪ ওভারে মাত্র ১৫ রান খরচ করে ২টি উইকেট তুলে নিয়েছেন এই লেগ স্পিনার।

আইপিএলের প্লে-অফ থেকে বিদায় নিশ্চিত হয়ে যাওয়ায় রশিদ ও নবী এখন আসন্ন বিশ্বকাপকেই পাখির চোখ করছেন। আর শুক্রবার (১০ মে) চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ারে মুখোমুখি হবে ধাওয়ানের দিল্লি।