• আজ ১৩ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

মাটি খুঁড়ে ২শ’ বছরের পুরনো গুপ্তধন উদ্ধার!

১০:৫২ অপরাহ্ণ | সোমবার, মে ১৩, ২০১৯ চট্টগ্রাম
mati

আশিক বিন রহিম, চাঁদপুর প্রতিনিধি- চাঁদপুরে শহরের পুরাণবাজার পালপাড়া কুন্ডু বাড়িতে মাটি খুঁড়ে গুপ্তধন পাওয়া গেছে বলে এলাকায় ব্যাপক গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়েছে।

১৩ মে শনিবার দুপুরে ব্যবসায়ী সুভাষ পোদ্দার বসত ঘর করতে গিয়ে মাটির নিচে পাতিলে থাকা ২শ’ বছরের পুরনো প্রায় শতাধিক মুদ্রা রাজ মিস্ত্রিরা উদ্ধার করার খবর পাওয়া গেছে। ঘটনা ধামাচাপা দিতে মূলবান কিছু মুদ্রা মাটি কাটার শ্রমিকদের দিয়ে তাৎক্ষনিক মুখ বন্ধ করার চেষ্টা করে। কিন্তু ভাগাভাগিতে সমস্যা সৃষ্টি হওয়ায় পরে তা জানাজানি হয়ে যায়।

স্থানীয়রা জানায়, পালপাড়ার বাসন্দিা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সুভাষ পোদ্দার তার শতাধিক বছরের পুরনো বাড়ির টিনের ঘর ভেঙ্গে নতুন করে করার সময় মাটি কাটতে গিয়ে পাতিলে থাকা গুপ্তধনের সন্ধান পায়। শনিবার দুপুরে সেখানে কাজ করতে আসা মিস্ত্রি সুভাষ, সুব্রত, আলামিন ও কবির ঘরের পালা ঘাড়তে গিয়ে মাটি কাটে। এসময় মাটির নিচ থেকে একটি গুপ্তধনের পাতিলে উদ্ধার করে।সেই পাতিল এর ভীতর প্রায় ২ শ’ বছরের পুরনো দুই শতাধিক প্রাচীন মুদ্রা দেখতে পায় তারা। মুদ্রাগুলো রুপা ও স্বর্ণের ছিল বলে ধারনা উদ্ধারকারীদের।

এই খবর পাওয়ার পর মাটির নিচ থেকে তোলা পাতিলে শত পুরনো মহামূল্যবান মুদ্রাগুলো বাড়ির মালিক সুভাষ পোদ্দার নিজে তড়গড়ি করে লুকিয়ে ফেলে। অকেজো কিছু মুদ্রা সেখানে কাজ করতে আসা মিস্ত্রিদের দিয়ে ধামাচাপা দেওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু ঘটনাটি জানাজানি হলে গুপ্তধন উদ্ধার নিয়ে এলাকায় ব্যাপক গুঞ্জন ছড়িয়ে পড়ে।

বাড়ির মালিক সুভাষ পোদ্দার জানায়, মাটি খুঁড়ে প্রাচীন কিছু মুদ্রা পাওয়া গেছে। সে মুদ্রাগুলো সবাইকে দিয়ে দেওয়া হয়েছে। আমার কাছে প্রমাণ স্বরূপ একটি মুদ্রা রেখেছি। তবে মুদ্রাগুলো প্রায় শত বছরের পুরনো।

এদিকে সুভাষ পোদ্দারের বাড়ি থেকে শত বছরের মহা মূল্যবান মুদ্রা উদ্ধার হওয়ার ঘটনাটি পুলিশকে না জানিয়ে তিনি নিজেই আত্মসাৎ করেছে বলে এলাকার স্থানীয়দের মাঝে ব্যপক গুঞ্জনের সৃষ্টি হয়। এ ঘটনায় পুলিশকে এখন পর্যন্ত অবহিত করা হয়নি বলে জানা গেছে।