টাইগারদের একাদশে আসছে একাধিক পরিবর্তন

১২:৩২ অপরাহ্ণ | বুধবার, মে ১৫, ২০১৯ খেলা

স্পোর্টস ডেস্কঃ চলমান ত্রিদেশীয় সিরিজে ইতিমধ্যে ফাইনাল নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশ। ফলে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে ম্যাচটি হয়ে দাঁড়িয়েছে কেবল আনুষ্ঠানিকতার। তবে ভিন্ন চ্যালেঞ্জ রয়েছে টাইগারদের। প্রথমত আইরিশদের বিপক্ষে জয়ের ধারা বজায় রাখা। দ্বিতীয়ত সাইড বেঞ্চ বাজিয়ে দেখা।

আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে এখন পর্যন্ত ৯টি ওয়ানডে খেলেছে বাংলাদেশ। ৬ জয়ের বিপরীতে হার দুটিতে, একটিতে ফল হয়নি। ২০১০ সালের পর আইরিশদের বিপক্ষে কখনই হারেননি লাল-সবুজ জার্সিধারীরা। জয়ের সেই ধারা বজায় রাখতে মরিয়া তারা। সে জন্য আইরিশদের বিপক্ষেও সিরিয়াস মাশরাফি বাহিনী।

আবার বিশ্বকাপের আগে সাইড বেঞ্চের খেলোয়াড়দের পরীক্ষা-নিরীক্ষা করতে চায় টিম ম্যানেজমেন্ট। এ জন্য প্রথম দুই ম্যাচে একাদশের বাইরে থাকা খেলোয়াড়দের সুযোগ দিতে চান তারা।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দুই ম্যাচে ভিন্ন ভিন্ন সময়ে বোলিং করিয়ে বোলারদের পরীক্ষা করেছে বাংলাদেশ। পুরোপুরি সফল তারা। উভয় ম্যাচেই দারুণ বোলিং করেছেন মাশরাফি, সাকিব, মিরাজ। প্রথমটিতে খারাপ করলেও দ্বিতীয় ম্যাচে স্বরূপে ফিরেছেন মোস্তাফিজ।

ইনজুরির কারণে দ্বিতীয় ম্যাচে খেলতে পারেননি সাইফউদ্দিন। প্রথমটিতে ভালো করেছেন। এ ম্যাচেও তার খেলার সম্ভাবনা ক্ষীণ। পেস অলরাউন্ডারের বদলি হিসেবে গেল ম্যাচে উইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডেতে অভিষেক হয়েছে আবু জায়েদ রাহীর। অবশ্য ভালো করেননি তিনি। তবে আরেকটি সুযোগ পেতে পারেন ডানহাতি এ পেসার।

কারণ আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে মূলত বিশ্রাম দেয়া হবে বোলারদের। মোস্তাফিজের ইনজুরি প্রবণতা বেশি। তাকে নিয়ে কোনো ঝুঁকি নিতে চায় না টিম বাংলাদেশ। তাই বিশ্রামে যাচ্ছেন তিনি। তার পরিবর্তে দলে আসতে পারেন রুবেল হোসেন। এ ছাড়া পরীক্ষিত মিরাজের পরিবর্তে দলে ঢুকতে পারেন ব্যাটিং অলরাউন্ডার মোসাদ্দেক হোসেন।

দুই ম্যাচেই ব্যাটসম্যানরা ভালো করেছেন। তাই তাদের নিয়ে ঘাঁটাঘাঁটির প্রয়োজন দেখা যাচ্ছে না। সৌম্য ও তামিমের উদ্বোধনী জুটির রসায়ন দারুণ জমে উঠেছে। সাকিব রয়েছেন স্বরূপে। বরাবরের মতোই ধারাবাহিক মুশফিক। মিঠুন শেষ ম্যাচে রান পেয়েছেন। মাহমুদউল্লাহর অবস্থাও তাই।

তবে কোনো ম্যাচেই ব্যাটিংয়ের সুযোগ পাননি সাব্বির। এ ম্যাচে তিনি খেলবেন তা প্রায় নিশ্চিত। টপঅর্ডারে বিশ্রামে যেতে পারেন তামিম। ওপেনিংয়ে তার পরিবর্তে দেখা যেতে পারে লিটনকে। মাঝে মুশফিক, মিঠুন ও মাহমুদউল্লাহ খেলবেন।