অবশেষে মুখ খুললেন পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়

৪:৫৩ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, মে ১৬, ২০১৯ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- দেশের বিভিন্ন জাতীয় দৈনিকে ১২ মে জঙ্গি শনাক্তকরণ যে ‘বিতর্কিত’ বিজ্ঞাপনটি ‘সম্প্রীতি বাংলাদেশের’ নামে প্রকাশ হয়েছে সেটি তাদের নয় বলে দাবি করেছেন সংগঠনটির আহ্বায়ক পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায়।

আজ বৃহস্পতিবার বেলা সাড়ে ১১টায় জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ এক সম্মেলনে তিনি এ দাবি জানান।

গত ১২ মে দেশের কয়েকটি জাতীয় পত্রিকায় সম্প্রতি বাংলাদেশের নামে জঙ্গি শনাক্তকরণের বিজ্ঞাপনটি প্রকাশ পায়। এরপর এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমসহ বিভিন্ন মাধ্যমে চলছে তুমুল আলোচনা-সমালোচনা।

পীযূষ বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ১২ মে দেশের বেশকিছু জাতীয় পত্রিকায় প্রচারিত বিজ্ঞাপনটির সাথে কোনো পর্যায়েই আমাদের প্রিয় সংগঠন সম্প্রীতি বাংলাদেশের কোনো সংশ্লিষ্টতা নেই।

সম্প্রীতি বাংলাদেশ মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দৃঢ়ভাবে বিশ্বাসী এবং সকল ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধাশীল একটি সামাজিক সংগঠন। দেশবাসীকে বিভ্রান্ত করতেই মুক্তিযুদ্ধের বিরোধী শক্তি এমন অপপ্রচার চালিয়েছে। সম্প্রীতি বাংলাদেশে অসাম্প্রদায়িকতার কোনো স্থান নেই।

তিনি বলেন, সম্প্রীতি বাংলাদেশ সব ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধাশীল থেকে অসাম্প্রদায়িক জাতিসত্তার পক্ষে কাজ করে চলেছে। সম্প্রীতি বাংলাদেশ মহান মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় দৃঢ়ভাবে বিশ্বাসী এবং সকল ধর্মের প্রতি শ্রদ্ধাশীল একটি সামাজিক সংগঠন।

সংবাদ সম্মেলনে সম্প্রীতি বাংলাদেশের লক্ষ্য সুন্দর, অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গড়ে তোলা দাবি করে পীযূষ বলেন, ‘সম্প্রীতি বাংলাদেশ আত্মপ্রকাশের পর থেকে এই পর্যন্ত সমাজের মানবিক বিষয়গুলোকে গুরুত্বের সঙ্গে বিবেচনা করে তার কার্যক্রম পরিচালনা করে চলেছে। আন্তঃধর্ম সুসম্পর্ক, বৈষম্যহীন সমাজ ও নিপীড়ন-নির্যাতনের বিরুদ্ধে আওয়াজ তোলাই আমাদের সংগঠনের উদ্দেশ্য।’