হঠাৎ ঝড়ে রাজধানীতে প্রাণ গেল ৪ জনের

১০:৪৫ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, মে ১৭, ২০১৯ জাতীয়
jhor

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ হঠাৎ ৯৩ কিলোমিটার বেগে রাজধানীর ওপর দিয়ে বয়ে গেলো ‘কালবৈশাখী’ ঝড়। এতে প্যান্ডেল ভেঙে বায়তুল মোকাররম মসজিদে মারা গেছেন এক মুসল্লি। এ ছাড়া বাড্ডায় দেয়াল ধসে মারা গেছেন অন্তত তিনজন। ভেঙে পড়েছে গাছের ডাল।

আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান জানান, ঢাকায় মৌসুমের বড় ধরনের কালবৈশাখী হয়ে গেলো শুক্রবার সন্ধ্যায়। এ ঝড়ের সর্বোচ্চ বাতাসের গতিবেগ উঠেছিল ঘণ্টায় ৯৩ কিলোমিটার। দেশের অন্যান্য স্থানেও এ ঝড় বয়ে গেছে।

হঠাৎ এ ঝড় রাজধানীর বিভিন্ন স্থানে বেশ তাণ্ডব চালিয়ে গেছে প্রকৃতিতে। দমকা বাতাস ও ঝড়ো বৃষ্টির কবলে পড়ে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম মসজিদের পশ্চিমপাশে মুসল্লিদের নামাজের অস্থায়ী প্যান্ডেল ভেঙে পড়ে সফিকুল ইসলাম (৩৫) নামে এক যুবক নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আহত অন্তত ১৩ জন।

এছাড়া মধ্যবাড্ডায় প্রাণ সেন্টারের পাশে একটি দেয়াল ধসে তিনজন আহত হন। এর মধ্যে ২ জনকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ও একজনকে পঙ্গু হাসপাতালে নেওয়া হয়। তবে তিনজনই মারা গেছেন।

আবহাওয়া অফিস জানিয়েছে, বৈশাখটা যেমন খরতাপে কেটেছে, জৈষ্ঠ্যটাও একইভাবে কাটবে। মাঝে একটু আধটু বৃষ্টিপাত কিছুটা আরাম দিলেও দিনের বেলায় সূর্য তার তেজ নিয়েই হাজির হবে। ফলে তাপমাত্রার তেমন কোনো পরিবর্তন হবে না।

আবহাওয়া অধিদপ্তর এক পূর্বাভাসে আরও জানিয়েছে, সাগরে লঘুচাপ আছে। সোমবার নাগাদ তাপমাত্রা আরও বাড়বে। তবে আগামী পাঁচদিনে বৃষ্টিপাতের প্রবণতাও কিছুটা বাড়বে।

আর শনিবার সন্ধ্যা ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘন্টার পূর্বাভাসে বলা হয়েছে, ঢাকা, ময়মনসিংহ ও সিলেট অঞ্চলে এবং রংপুর, রাজশাহী বিভাগের কিছু কিছু জায়গায় বৃষ্টি অথবা বজ্রবৃষ্টির সঙ্গে ঝড়ো অথবা দমকা হাওয়া বয়ে যেতে পারে। এছাড়া দেশের সর্বত্র আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক ও আকাশ মেঘলা থাকবে। তবে কালবৈশাখী ও ভারী বর্ষণের কোনো সতর্কতা নেই।

শুক্রবার দেশে সর্বোচ্চ তাপমাত্র রেকর্ড করা হয়েছে যশোরে, ৩৮ দশমিক ৬ ডিগ্রি। আর সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাত হয়েছে রাজারহাটে, ৩৭ মিলিমিটার।