‘ধান ক্ষেতে দু’একজন ভাবাবেগে আগুন দিয়েছে, সারা দেশে দিচ্ছে না’

৪:৫১ অপরাহ্ণ | শনিবার, মে ১৮, ২০১৯ জাতীয়

সময়ের কণ্ঠস্বর, ঢাকা- ধানের দাম কম হওয়ায় ধান ক্ষেতে আগুন দেয়া প্রসঙ্গে কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আবদুর রাজ্জাক বলেছেন, দু-একজন ভাবাবেগ হয়ে ধান ক্ষেতে আগুন দিয়েছে। সারাদেশে ওইভাবে আগুন দিচ্ছে না। আমি মনে করি মানুষ দায়িত্বশীল, তারা নিজের ক্ষেতে আগুন দিয়ে পুড়িয়ে ফেলবে, এটা কোনদিনও হতে পারে না।

শনিবার রাজধানীর ইনস্টিটিউশন অব ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্স মিলনায়তনে ‘জলবায়ু পরিবর্তন: কৃষি খাতের চ্যালেঞ্জ’ শীর্ষক এক সেমিনারে মন্ত্রী একথা বলেন। বাংলাদেশ ক্লাইমেট চেঞ্জ জার্নালিস্ট ফোরাম সেমিনারটির আয়োজন করে।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশে কৃষি খাতে বিপ্লব হয়েছে। এটা খারাপ দিক না। এটা নিয়ে হতাশারও কিছু নেই। ফ্রান্সের মতো বাংলাদেশেও চাষীরা ড্রাম ভর্তি দুধ রাস্তায় ফেলে দেয়, ট্রাক ভর্তি টমেটো নিয়ে হাইওয়েতে ফেলে দেয়। কৃষি একটা স্পর্শকাতর সেক্টর। আমরা তো সব সময় চাই খাবারের দাম কম থাকুক, চালের দাম কম থাকুক। বাংলাদেশে অধিক ধান উৎপাদন এখন বিড়ম্বনা হয়ে দেখা দিয়েছে। ধান চাষ উদ্ধৃত্ত হয়েছে।

তিনি বলেন, ‘ধান কিনে ধানের দাম বাড়ানোর সুযোগ আপাতত সরকারের হাতে নেই। আমি ও খাদ্যমন্ত্রী গতকাল এ বিষয় নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলেছি। প্রধানমন্ত্রীও বিষয়টি নিয়ে চিন্তিত। ধানের দাম বাড়ানোর একমাত্র উপায় হল, চাল রপ্তানি করা। এটাও আমাদের চিন্তাভাবনা করে করতে হচ্ছে।’

কৃষিমন্ত্রী জানান, প্রয়োজনীয় গুদাম নেই, যার ফলে ধান কিনে মজুদ করার মত জায়গাও নেই। সরকার ধান, চাল রপ্তানি করার কথা ভাবছে। তবে ভারত-থাইল্যান্ডের মত ধান রপ্তানিতে আমাদের অভিজ্ঞতা না থাকায় বাজার নিয়ে আরও ভাবতে হবে।

তিনি আরো বলেন, ‘গতবারের মজুদ এখনো অবশিষ্ট আছে ৮/১০ লাখ টন। মিলাররাও গতবার আমাদের অনুরোধে ব্যাংক থেকে টাকা নিয়ে ধান কিনে গুদামে রেখেছেন। তাঁরাও সেগুলো এখন বিক্রি করতে পারছেন না।’