সংবাদ শিরোনাম
চীন সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী | কলেজ ও মাদ্রাসার বইয়ের বিপুল পরিমাণ নকল কপি জব্দ! | বাংলাদেশি যুবককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে খুন করলো এক ভারতীয় নারী | নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে সেমিফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখল পাকিস্তান | ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি গেমসে রাবির শিরিন ও যবিপ্রবির উজ্জ্বল | সন্ত্রাসীদের সঙ্গে যুদ্ধ করেও স্বামীকে বাঁচাতে পারলেন না তিনি…… | স্ত্রীকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় স্বামীকে কুপিয়ে হত্যা | কিশোরগঞ্জে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার, অবৈধ পাচার বিরোধী র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত | ঠাকুরগাঁওয়ে কলেজছাত্রী ধর্ষনের শিকার, আটক-১ | লক্ষ্মীপুরে ইয়াবা বিক্রয়ের অভিযোগে নারীসহ আটক-২ |
  • আজ ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

হাইকোর্টের নির্দেশে বন্ধ ঝালকাঠির ৬টি কারখানা, বেকার হয়ে পরেছে ৫ শতাধিক শ্রমিক

১০:১৪ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, মে ২১, ২০১৯ বরিশাল
bekar

মো:নজরুল ইসলাম,ঝালকাঠি প্রতিনিধি:: বিএসটিআই এর পরীক্ষায় নিম্নমান প্রমানিত হওয়ায় হাই কোর্টির আদেশে ৫২ টি পন্য বাজার থেকে প্রত্যাহারের নির্দেশে বন্ধ হয়েছে গেছে ঝালকাঠির ৫টি লবন ও একটি সেমাই মিল। ফলে বেকার হয়ে পরেছে এসব মিলে কর্মরত ৫ শতাধিক শ্রমিক। আসন্ন ঈদ তাদের জীবনে আনন্দের পরিবর্তে কান্না নিয়ে আসছে। অপরদিকে মিল মালিকরাও বড় ধরনের লোকসানের মুখে পরেছেন। তারা বিএসটিআই এর কাছে নতুন করে নমূনা পরীক্ষার আবেদন করেছে।

মাত্র সপ্তাহ খানেক আগে এই সব কারখানা ছিল শ্রমিকদের কর্মচাঞ্চল্য আর মেশিনের শব্দে মুখরিত। কিন্তু বিএসটিআই এর পরীক্ষায় নিম্ন মানের প্রমানিত হওয়ায় হাই কোট যে ৫২টি পন্য বাজর থেকে প্রত্যাহারের নির্দেশ দিয়েছে তার ৭টিই ঝালকাঠির ৬টি কারখানার। এর মধ্যে ৫টি লবন ও একটি সেমাই কারখানা রয়েছে। পন্য গুলো হলো নিউ ঝালকাঠি সল্ট মিলের দাদা সুপার আয়োডিন লবন, তাজ সল্টের তাজ আয়োডিন লবন, কোয়ালিটি সল্টের তিন তীর আয়োডিন লবন, লাকি সল্টের মদিনা ও ষ্টারশিপ আয়োডিন লবন, নূর সল্টের নূর স্পেসাল আয়োডিন লবন এবং জেদ্দা ফুড ইন্ডাষ্ট্রি এর জেদ্দা লাচ্চা সেমাই। হাই কোর্টের আদেশের পরপরই মালিক পক্ষ কারখানাগুলো বন্ধ করে দিয়েছে। ফলে বেকার হয়ে পরেছে এসব কারখানার উৎপাদন বিভাগে কর্মরত ৫ শতাধিক শ্রমিক। আসন্ন ঈদ উদযাপন দূরে থাক পরিবার পরিজনের খাবার যোগার কিভাবে হবে তাও তাদের অজানা।

মালিক পক্ষ জানিয়েছেন, শ্রমিকরা প্রতিদিন তালাবদ্ধ মিলের সামনে এসে হতাশ হয়ে ফিরে যাচ্ছে। হাই কোর্টের নির্দেশ আনুযায়ী তারা (মালিক) বাজারে সরবরাহ করা পন্য ফেরত এনে বিনস্ট করে ফেলছেন। এতে বিশাল অংকের লোকসানের মুখে পরতে হচ্ছে। তবে দূরত্বের কারনে এখনো সব পন্য ফিরিয়ে আনা যায়নি বলে তারা জানান।

ঝালকাঠি লবন মিল মালিক সমিতির সাধারন সম্পাদক মোঃ জামাল শরীফ জানান, তারা নতুন করে সেম্পলিং এর জন্য বিএসটিআই এর কাছে আবেদন করেছেন। কতৃপক্ষের অনুমোদন পেলে নতুন করে উৎপাদন শুরু করা হবে।

মালিক পক্ষ তাদের লোকসান পুষিয়ে নিতে পারবেন কিন্তু হতভাগ্য শ্রমিকদের ক্ষতি পুরণের ব্যাবস্থা আদৌ হবে কিনা এ প্রশ্ন বিশিষ্ট জনদের।