সংবাদ শিরোনাম
বেনাপোলে নারীর ব্যাগ থেকে ৪০হাজার ৪শ ইউএস ডলার ও ১৩ লাখ ভারতীয় রুপি উদ্ধার | কয়েক দফা ধর্ষণে ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা , শিক্ষক গ্রেফতার | খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও মুক্তির বিষয়টি আন্তর্জাতিক মহলে তুলবে বিএনপি | পরকীয়ার টানে পালিয়েছে স্ত্রী, ক্ষোভে শ্যালিকাকে পাঁচমাস ধরে ধর্ষণ! | ফরিদপুরে বন্যায় রাস্তাঘাটসহ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ব্যপক ক্ষতি | আবার ছুটি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে সাকিব | রূপগঞ্জে প্রাইভেটকার মটরসাইকেল মুখোমুখী সংঘর্ষে নিহত-১, আহত ৬ | কন্ডিশনিং ক্যাম্পে ডাক পেলেন মাশরাফি | সাতক্ষীরায় খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ | সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলে ঐতিহ্য ‘ভাইয়াফি’ কুস্তি খেলা |
  • আজ ৩রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে বেড়েছে মুসলমান সদস্য

১০:৪৮ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, মে ২৪, ২০১৯ আন্তর্জাতিক
loksova

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ভারতের সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে মুসলমান আইনপ্রণেতাদের সংখ্যা বেড়েছে। এবারের নির্বাচনে ২৬ মুসলমান প্রার্থী জয়ী হয়েছেন। গত লোকসভায় ২৩ মুসলমান সদস্য ছিলেন। তাদের অধিকাংশই কংগ্রেস ও তৃণমূল কংগ্রেস থেকে নির্বাচিত হয়েছিলেন। ১৯৮০ সালে সবচেয়ে বেশি মুসলমান প্রার্থী লোকসভায় নির্বাচিত হয়েছিলেন।

ভারতের জনসংখ্যার এক পঞ্চমাংশ হচ্ছেন মুসলমানরা। এসব প্রার্থীরা তাদের হয়ে লোকসভায় প্রতিনিধিত্ব করেন।

হায়দরাবাদ থেকে দুই লাখ ৮২ হাজার বেশি ভোট জয়ী হয়েছেন ওয়াইসি। এটা তার টানা চতুর্থ বিজয়। ভারতের সবচেয়ে বেশি মেয়াদে নির্বাচিত মুসলমান প্রার্থী হচ্ছেন তিনি।

তার দলের প্রার্থী সাবেক সাংবাদিক ইমতিয়াজ জলিল সাঈদ মহারাষ্ট্র থেকে ৪৫ হাজার বেশি ভোটে জয়ী হয়েছেন। উত্তর প্রদেশ থেকে চার মুসলমান প্রার্থী জয়ী হয়েছেন। এছাড়াও আরও দুই প্রার্থী এগিয়ে রয়েছেন।

১৪ ও ১৫তম লোকসভা নির্বাচনে ৩০ ও ৩৪ মুসলমান প্রার্থী বিজয়ী হয়েছিলেন। তখন কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউপিএ সরকার ক্ষমতায় ছিল।

আর ১৯৮৪ সালে ক্ষমতায় আসেন রাজিব গান্ধী। তখন দেশটিতে লোকসভায় ৪২ মুসলমান সদস্য ছিলেন। আর লোকসভায় সবচেয়ে কম মুসলমান প্রার্থী ছিলেন ১৯৫২ সালে। তখন ১১ মুসলমান প্রার্থী নির্বাচিত হন।

-খবর বিজনেস স্ট্যান্ডার্ডের