সংবাদ শিরোনাম
বেনাপোলে নারীর ব্যাগ থেকে ৪০হাজার ৪শ ইউএস ডলার ও ১৩ লাখ ভারতীয় রুপি উদ্ধার | কয়েক দফা ধর্ষণে ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা , শিক্ষক গ্রেফতার | খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও মুক্তির বিষয়টি আন্তর্জাতিক মহলে তুলবে বিএনপি | পরকীয়ার টানে পালিয়েছে স্ত্রী, ক্ষোভে শ্যালিকাকে পাঁচমাস ধরে ধর্ষণ! | ফরিদপুরে বন্যায় রাস্তাঘাটসহ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ব্যপক ক্ষতি | আবার ছুটি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে সাকিব | রূপগঞ্জে প্রাইভেটকার মটরসাইকেল মুখোমুখী সংঘর্ষে নিহত-১, আহত ৬ | কন্ডিশনিং ক্যাম্পে ডাক পেলেন মাশরাফি | সাতক্ষীরায় খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ | সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলে ঐতিহ্য ‘ভাইয়াফি’ কুস্তি খেলা |
  • আজ ৩রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

৩০ মে শপথ নেবেন মোদি

১০:৫৫ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, মে ২৪, ২০১৯ আন্তর্জাতিক
MODI

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ভারতের ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে গতবারের চেয়ে আরও বেশি আসন নিয়েই দ্বিতীয়বারের মতো দেশের প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব নিতে চলেছেন নরেন্দ্র মোদি। আগামী ৩০ মে বৃহস্পতিবার তিনি শপথ নিতে পারেন বলে জানা গিয়েছে। বিকেল ৪ টে থেকে ৫ টার মধ্যে হতে পারে শপথ গ্রহণ।

নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে বিজেপি নেতৃত্বাধীন এনডিএ দিল্লির মসনদে ফেরার পরেই সরকারের শপথগ্রহণের দিন নিয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে। প্রবল মোদী-ঝড়ে এনডিএ এবার ৩৫০-র বেশি আসন পেয়েছে।

শপথ নেওয়ার আগে গুজরাট ও বারাণসী যাবেন মোদি। আগামী ২৮ মে তার বারাণসী যাবার কথা রয়েছে। নির্বাচনে বড় জয়ের পর থেকেই যুক্তরাষ্ট্র, ইসরায়েল, চীন, রাশিয়াসহ বিভিন্ন দেশের প্রধানদের কাছ থেকে অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা বার্তা পেয়েছেন তিনি।

২০১৪’য় নমো’র শপথগ্রহণ অনুষ্ঠানে সার্কভুক্ত দেশগুলির প্রতিনিধিরা আমন্ত্রিত ছিলেন। পাকিস্তানের তত্‍‌কালীন প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফ, শ্রীলঙ্কার সে সময়কার প্রেসিডেন্ট মাহিন্দা রাজাপক্ষে, নেপালের প্রধানমন্ত্রী সুশালী কৈরালা, মালদ্বীপের প্রেসিডেন্ট আবদুল্লা ইয়ামিন উপস্থিত ছিলেন। পাশাপাশি ধর্মেন্দ্র, অনুপম খের, সলমন খান, বিবেক ওবেরয়ের মতো বলিড সেলিব্রেটিরাও ছিলেন। তবে, এ বার তেমন কোনও পরিকল্পনা এখনও পর্যন্ত নেওয়া হয়নি বলে ওই সূত্র জানাচ্ছে।

বৃহস্পতিবার ভাষণ দিতে গিয়েই তিনি এই জয়ের জন্য ১৩০ কোটি ভারতবাসীকে প্রণাম জানান৷ তিনি বলেন, যদি কারও জয় হয়ে থাকে, তাহলে সেই জয় ভারতের, সেই জয় গণতন্ত্রের, সেই জয় জনতার। যারা ভোটপ্রক্রিয়া সুষ্ঠভাবে হতে সাহায্য করেছে, তাদের সবাইকে ধন্যবাদ জানিয়ে তিনি আরও বলেন, স্বাধীনতার পর এবারই সবথেকে বেশি ভোট পড়েছে। এটা নজিরবিহীন ঘটনা। দেশের মানুষ প্রমাণ করে দিয়েছে যে তারা দেশের পক্ষে ভোট দিয়েছেন।

খবর: কলকাতা ২৪