লজ্জার হারে স্বপ্নভঙ্গ ভারতের সবচেয়ে ধনী প্রার্থীর, খুইয়েছেন জামানত

১১:৩১ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, মে ২৬, ২০১৯ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- রমেশ কুমার শর্মা (৬৩)। তিনিই ছিলেন ভারতের চলমান সপ্তদশ নির্বাচনে সবচেয়ে ধনী প্রার্থী। স্থাবর ও অস্থাবর মিলিয়ে তার সম্পদের পরিমান শুনলে চোখ কপালে উঠতে বাধ্য। হলফনামা অনুযায়ী তার মোট সম্পদের পরিমাণ ১,১০৭ কোটি রুপি।

বিহারের পালিতপুরা লোকসভা কেন্দ্র থেকে স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসাবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন রমেশ কুমার। কিন্তু টাকা থাকলেই যে সব জেতা যায় না, তা আরও একবার প্রমাণ করে দিলো ভারতের সদ্য ঘোষিত লোকসভা নির্বাচনের ফলাফলে।

ভারতের সপ্তদশ লোকসভা নির্বাচনে বিহারের পাটলিপুত্র এলাকা থেকে নির্বাচনে অংশ নেওয়া রমেশ কুমার শর্মার বিশেষত্ব ছিল তাঁর বিপুল সম্পত্তি। এবারের লোকসভা নির্বাচনে সবচেয়ে ধনী প্রার্থীর তকমা পাওয়া স্বতন্ত্র প্রার্থী রমেশ কুমার শর্মা এক হাজার ১০৭ কোটি রুপির মালিক।

নিজের এই বিপুল সম্পত্তির কথা নির্বাচনী হলফনামায় জানিয়েছিলেন রমেশ কুমার। নির্বাচনে জয়লাভের জন্য ব্যাপক প্রচারণাও চালিয়েছিলেন। তবে ভোট শেষে ভারতীয় গণতন্ত্র রমেশকে যে উত্তর দিয়েছে, তা কোনোদিনই হয়তো ভুলতে পারবেন না রমেশ শর্মা।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি জানায়, নিজের হাজার কোটি রুপির সম্পত্তি থাকলেও রমেশের পক্ষে ভোট পড়েছে মোটে দেড় হাজারটি! সাকুল্যে মাত্র এক হাজার ৫৫৬টি ভোট নিয়ে শেষটায় জামানতই খোয়াতে হলো পাটলিপুত্রের এই প্রার্থীকে।

স্বতন্ত্র প্রার্থী হিসেবে ১৭তম লোকসভা নির্বাচনে লড়ছিলেন রমেশ কুমার শর্মা। তাঁর উল্টো দিকে ছিলেন বিজেপির হেভিওয়েট প্রার্থী রাম কৃপাল যাদব। ছিলেন আরজেডির মিশা ভারতী। পাটলিপুত্র কেন্দ্র থেকে মোট ৫,০৯,৫৫৭ ভোট পেয়ে জয়লাভ করেছেন রাম কৃপাল যাদব। আরজেডির মিশা ভারতী পেয়েছেন ৪,৭০,২৩৬ ভোট। আর সে জায়গায় প্রতিপক্ষদের ধারেকাছে ঘেঁষতে পারেননি নির্দল রমেশ কুমার শর্মা। মাত্র ১,৫৫৬ ভোট পেয়েছেন তিনি।