সংবাদ শিরোনাম
চীন সফরে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী | কলেজ ও মাদ্রাসার বইয়ের বিপুল পরিমাণ নকল কপি জব্দ! | বাংলাদেশি যুবককে প্রকাশ্যে কুপিয়ে খুন করলো এক ভারতীয় নারী | নিউজিল্যান্ডকে হারিয়ে সেমিফাইনালের আশা বাঁচিয়ে রাখল পাকিস্তান | ওয়ার্ল্ড ইউনিভার্সিটি গেমসে রাবির শিরিন ও যবিপ্রবির উজ্জ্বল | সন্ত্রাসীদের সঙ্গে যুদ্ধ করেও স্বামীকে বাঁচাতে পারলেন না তিনি…… | স্ত্রীকে উত্ত্যক্ত করার প্রতিবাদ করায় স্বামীকে কুপিয়ে হত্যা | কিশোরগঞ্জে মাদকদ্রব্যের অপব্যবহার, অবৈধ পাচার বিরোধী র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত | ঠাকুরগাঁওয়ে কলেজছাত্রী ধর্ষনের শিকার, আটক-১ | লক্ষ্মীপুরে ইয়াবা বিক্রয়ের অভিযোগে নারীসহ আটক-২ |
  • আজ ১৩ই আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

পারিবারিক কু-চক্রে ছোট ভাই এর হাতে বড় ভাই খুন

৮:০৮ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, মে ৩১, ২০১৯ রাজশাহী
khun

ওবায়দুল ইসলাম রবি, রাজশাহী প্রতিনিধি- রাজশাহী চারঘাট উপজেলায় পারিবারিক কু-চক্রে আর কবিরাজের ভূয়া তথ্য কেন্দ্র করে ছোট ভাই এর হাতে বড় ভাই খুন হয়েছে। আইন শৃঙ্খলার ভয়ে মৃত পিতা ও মাতার প্রকৃত অভিযোগ প্রকাশ পাচ্ছে না।

উপজেলা ইউসুফপুর বাহাদুর পাড়ার গোপাল চন্দ্র দাসের চার ছেলে আশ্নিনী কুমার দাস (পচা), তরণী, ধরণী এবং অবনি। গত রবিবার ১৯ মে রাত অনুমান ১০টার সময় আশ্নিনী কুমার দাস (পচা) এর ছোট ছেলে অসীম কুমার দাস একটি শক্ত লোহা দিয়ে তার বড় ছেলে অশীতের মাথায় আঘাত করে। তৎক্ষনাত তাদের চিৎকারের এক পর্যায়ে অশীতের স্ত্রী লক্ষী রানীসহ অন্যান্য আহত ব্যাক্তিকে উদ্ধার করে জেলার সিডিএম ক্লিনিকে ভর্তি করে।

ওই ঘটনার তথ্য সংগ্রহকালে আসল ঘটনার জানাযায়, কিছু দিন পূর্বে অশীতের বাড়ি থেকে ৪০ হাজার টাকা এবং ১.৫০ ভরি স্বর্ণ চুরি হয়। এঘটনাকে কেন্দ্র করে নিহতের কাকা তরনী কবিরাজের সহযোগিতা নেয়। গাইবান্দা জেলার গবিন্ধগঞ্জের আব্দুল গনির ছেলের কবিরাজ নজরুল ইসলামের তথ্য মতে নিহতের ভাই অসীম কুমারকে টাকা এবং স্বর্ণ চুরীর অপবাদ দেয়া হয়।

নিহতের স্ত্রী লক্ষী রাণী, কাকা তরনী এবং প্রতিবেশি বিপদ মাষ্টার যোগ সূত্রে করে ওই পরিবারের মধ্যে দন্ধের মূল ভূমিকা পালন করে আসছে। তদুপরি নিহতের কাকা তরনী এলাকার সন্ত্রাস এবং মাদক ব্যবসায়ী জামিরুল, সাইদুর, জোয়ার, মোমিন এবং আমুদের ২ হাজার টাকা বদলাতে অসীমকে উত্তম মাধ্যম দেয়। এ জেরে নিহতের ছোট ভাই অসীম এর আঘাতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার বড় ভাই অশীত নিহত হয়। এই খুনের সাথে জড়িতদের কেন আটক করা হচ্ছে না, তদুপরি এই ঘটনার মূল নিয়ন্ত্রক তরনীর সাথে পুলিশ কেন আটক করছে না বলে জানায় নিহতের বাবা, মাতা, ভাই এবং স্থানীয়রা। নিহতের স্ত্রী লক্ষীরানীসহ ওই চক্রের সহযোগিরা জোর পূর্বক নিহতে বাবার কাছ থেকে খালি ষ্টাম্পে টিপ স্বাক্ষর নিয়েছে বলে অভিযোগ করেছে তার পরিবার।

এবিষয়ে নিহতের কাকা তরনী স্বীকারোক্তিতে বলেন, তিনি সহ বিপদ মাষ্টার, আকবর আলী, শেফালী রাণী, শ্রমতী লতা, অশীত, লক্ষী রাণী এবং অসিম গাইবান্দা জেলার গবিন্ধগঞ্জের আব্দুল গনির ছেলের কবিরাজ নজরুল ইসলামের সঙ্গে দেখা করেছে। ওই সময় চুরী হওয়া মালামাল অসীম নিয়েছে বলে জানায় কবিরাজ। তারপর থেকেই মৃত্যুতে ঘটনার অবসান ঘটে। বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশন চারঘাট শাখার একটি দল ওই হত্যার সংশ্লিষ্ট বিষয় তথ্য সংগ্রহ কালে জানাযায়, অসীমের আঘাতে অশীত মারা গেলেও তার সহযোগি অনেকে ছিল তার সূত্র পাওয়া যায়। তবে থানা পুলিশ বলছে মামলায় অন্যদের অভিযোগ করা হয়নি।

অশীত সিডিএম হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আবস্থায় নিহত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকালে তাকে দাহন করা হয়। এবিষয়ে চারঘাট মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা হয়ছে। এই ঘটনার সঠিক তথ্য উৎঘাটনের চেষ্টাসহ অভিযুক্ত অমীমকে আটকের প্রচেষ্টা চলছে। এতথ্য নিশ্চিত করেছেন চারঘাট মডেল থানার ওসি নজরুল ইসলাম।