১৯ ঘণ্টা রোজা রেখে খেলেছেন মাহমুদউল্লাহ-মুশফিক–মিরাজ!

৫:২৯ অপরাহ্ণ | সোমবার, জুন ৩, ২০১৯ খেলা
musi

স্পোর্টস আপডেট ডেস্কঃ গতকাল নিজেদের প্রথম ম্যাচেই শক্তিশালী দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুর্দান্ত ব্যাটিং এবং বোলিং করে ২১ রানের রাজকীয় জয় তুলে নিয়েছে টিম বাংলাদেশ। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে রোজা রেখে খেলেছেন দলের তিন তারকা—মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ ও মেহেদি হাসান মিরাজ।

মুশফিক তো ১৪২ রানের জুটি গড়ে বাংলাদেশের জয়ের মূল কাজটিই করে দিয়ে গেছেন সাকিব আল হাসানের সঙ্গে। শুধু তাই নয়, ৭৮ রানের সর্বোচ্চ ইনিংসটিও খেলেছেন মুশফিক।

মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ শেষ মুহূর্তে অসাধারণ ব্যাট করলেন। ৩৩ বলে করেছেন অপরাজিত ৪৬ রান। তার এই ঝড়ো ইনিংসেই বাংলাদেশের রান গিয়ে ঠেকে ৩৩০-এ। যে কারণে ২১ রানের ব্যবধানে জয় এলো। টাইট বোলিং করেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ফিল্ডিংয়ে বরাবরই দুর্দান্ত তিনি।

দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারানোর পর সংবাদ সম্মেলনে এসে মাশরাফি বিন মর্তুজা নিজেই জানালেন বাংলাদেশ দলের এই তিন ক্রিকেটারের রোজা রেখে খেলার কথা। শুধু তাই নয়, বিশেষ ধন্যবাদও তিনি জানিয়েছেন এই তিন ক্রিকেটারকে।

আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলনে মাশরাফি বিন মুর্তজা বললেন, ‘মুশি (মুশফিক), রিয়াদ (মাহমুদউল্লাহ) ও মিরাজকে নিয়ে আমি গর্বিত যে তারা রোজা রেখে ভালো খেলেছে,’ এবার নিশ্চয়ই লিখতে বাধা নেই!

মুশফিক-সাকিবের ইনিংসসহ বাংলাদেশের ব্যাটিং নিয়ে মাশরাফি সংক্ষেপে বলেন, ‘মুশফিক নিয়মিতই এমন ইনিংস খেলে থাকে। সাকিব দারুণ ব্যাটিং করেছে। শুরুতে সৌম্য গতিপথ ঠিক করে দিয়েছে এবং শেষে মাহমুদউল্লাহ-মোসাদ্দেক ফিনিশিং দিয়েছে।’

রোজা রেখে প্রথম আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলার অভিজ্ঞতা সম্পর্কে মিরাজ বললেন, ‘জানেনই, বিশ্বকাপের ম্যাচে অনেক চাপ থাকে। আল্লাহর অশেষ রহমত, রোজার দিনে এমন ম্যাচ খেলা ভাগ্যের ব্যাপার। এটা অনেক বড় অভিজ্ঞতা। ভালো লেগেছে, এমন দিনে জিততে পেরেছি। যখন নিয়ত করেছি রোজা থাকব, আল্লাহর ওপর ছেড়ে দিয়েছি। মাশরাফি ভাই বলছিলেন, আল্লাহর বরকত আছে আমাদের ওপর।’

মিরাজ আরও বলেন,‘আজ (কাল) খেলার সময় রোজা মাথায় ছিল না। বোলিং-ব্যাটিং নিয়েই বেশি ভেবেছি। যখন খেলা শেষ হয়েছে, তখন একটু খারাপ অনুভব হয়েছে, মনে পড়েছে, আমি তো রোজা আছি!’

প্রসঙ্গত, সাকিব আল হাসান, মুশফিকুর রহীমের জোড়া হাফসেঞ্চুরি আর শেষ দিকে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ঝড়ো ব্যাটে ভর করে ৬ উইকেটে ৩৩০ রানের হিমালয়সম সংগ্রহ দাঁড় করিয়েছে টাইগাররা। এটাই এখন বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ রান।