‘বালিশ মিষ্টি’ খেয়ে একই পরিবারের ১০ জন হাসপাতালে!

৩:০০ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, জুন ৪, ২০১৯ ময়মনসিংহ

নেত্রকোনা প্রতিনিধি :: নেত্রকোনার দুর্গাপুর উপজেলায় বালিশ মিষ্টি খেয়ে একই পরিবারের ১৪ জন অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাদের মধ্যে ১০জনকে দুর্গাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য সহকারী ফারজানা নাসরীন বলেন, তার ননদ রাবেয়া আক্তার একজন ইপিআই স্টোর কিপার। তিনি গত শনিবার সন্ধ্যায় দূর্গাপুর কাকৈরগড়া ইউনিয়নের ইন্দ্রপুর গ্রামের বাবার বাড়ি মীর্জা বাড়িতে যান। যাওয়ার সময় নেত্রকোনা খান মিষ্টান্ন ভান্ডার থেকে কয়েক প্যাকেট বালিশ মিষ্টি নিয়ে গেছেন। এরপর রাতে সবাই কম বেশি বালিশ মিষ্টি খেয়েছেন।

ফারজানা নাসরীন বলেন, ঈদে বাড়িতে আসা তার দেবর মীর্জা শিমুল রাজশাহীর এসিল্যন্ড সহ পরিবারের সকলেই এখন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ঈদের আনন্দ আর নেই তাদের পরিবারে। গত রবিবার সকাল থেকে তারা অসুস্থ হয়ে একে একে ১০ জন হাসপাতালে ভর্তি হন। বাকী চারজন প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়ে বাসায় ফিরেছেন।

এসকল অসুস্থ হওয়া রোগী সহ আশপাশের মানুষজন বলছেন সরকারি তদারকি নেই মিষ্টির দোকানগুলোতে। যে কারণে তারা যা খুশি তাই উপকরণ ব্যবহার করে ব্যাবসা চালিয়ে যাচ্ছে।

দুর্গাপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. এ এস এম তানজিরুল ইসলাম বলেন, ফুড পয়জনের শিকার হয়েই বর্তমানে একই পরিবারের ১০ জন হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।