বিজেপিতে যোগ দিলেন বাংলাদেশি নাগরিক অঞ্জু ঘোষ!

১১:২১ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, জুন ৬, ২০১৯ বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক :: ভারতের ক্ষমতাসীন দল বিজেপিতে যোগ দিলেন বাংলাদেশের প্রখ্যাত অভিনেত্রী অঞ্জু ঘোষ৷ বুধবার পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য বিজেপির দপ্তরে তাঁর হাতে দলীয় পতাকা তুলে দিলেন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ৷ তবে ‘বেদের মেয়ে জ্যোৎস্না’ খ্যাত এই বাংলাদেশি অভিনেত্রী ভারতের রাজনৈতিক দলে কীভাবে যোগ দিতে পারেন, তা নিয়ে ইতিমধ্যে উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন। যদিও এই প্রশ্নের উত্তর এড়িয়ে যান অঞ্জু ঘোষ এবং বিজেপি নেতৃত্ব৷ এমনকী, উইকিপিডিয়াতেও তাঁর নাগরিকত্ব বাংলাদেশি দেখাচ্ছে৷ যাকে কেন্দ্র করে জল্পনা তুঙ্গে রাজনৈতিক মহলে৷

শাসকদলের সমালোচনা করে দিলীপ ঘোষ জানান, যাঁরাই বাংলায় পরিবর্তন চাইছেন, তাঁরাই বিজেপিকে চাইছেন৷ তিনি বলেন, জুলাই মাস থেকে আবার বিজেপির সদস্যপদ গ্রহণের অভিযান শুরু হচ্ছে৷ গতবার মিসড কলের মাধ্যমে যে সদস্য গ্রহণ অভিযান শুরু হয়েছিল, জুলাই মাস থেকে আবারও সেই সদস্যপদ নবীনকরণের কাজ শুরু হবে৷ এরাজ্যে বিজেপির সদস্য ছিল ৪২ লক্ষ৷ আমরা ৮৬ লক্ষ ভোট পেয়েছিলাম৷ এবার ২ কোটি ৩০ লক্ষের বেশি ভোট পেয়েছি৷

একটা টার্গেট রাখা হয় যে, প্রত্যেকবার ২৫ শতাংশ করে বেশি সদস্যপদ বাড়ানোর৷ ২৫ শতাংশ নয় আমার আশা, এবার ১২৫ শতাংশ সদস্য আমরা বাড়াতে পারব৷ এখানেই শেষ নয়, বুধবার রেড রোডের নামাজে গিয়ে বিজেপির উদ্দেশে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় যে ‘চুর চুর হো জায়েগা’ হুঁশিয়ারি দিয়েছেন৷ এদিন তারও উত্তর দেন রাজ্য বিজেপি সভাপতি৷ জানান, এক সময়ে উনি বলেছিলেন ‘ইঞ্চিতে ইঞ্চিতে বুঝে নেব৷ আজ তাঁর দলই ভাঙতে বসেছে৷ কে ভেঙে চুরমার হয়ে যাচ্ছে তা সবাই দেখতে পাচ্ছে৷ সেজন্যই ৪২ থেকে ২২-এ নেমে এসেছে৷

উল্লেখ্য, মঙ্গলবার সন্ধাবেলায় নিমতায় খুন হন উত্তর দমদম পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল সভাপতি নির্মল কুণ্ডু। এই ঘটনায় মূল অভিযুক্ত-সহ দু’জনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ধৃতদের মধ্যে একজন আবার বিজেপি নেতা বলেও জানা গিয়েছে।

সেই বিষয়ে রাজ্য বিজেপি সভাপতি বলেন, এখন রাজ্য কোনও ঘটনা ঘটলেই তার সঙ্গে বিজেপিকে জুড়ে দেওয়া হচ্ছে৷ ঘটনার সঙ্গে দলের কোনও সম্পর্ক নেই বলেই দাবি করেন দিলীপ ঘোষ৷ তিনি জানান, রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় বিজেপিতে যোগদানের হিড়িক পড়েছে৷ সমস্ত স্তরের মানুষ বিজেপির ছাতার তলায় আসতে চাইছে৷ এবং শাসকদল তৃণমূলকে উৎখাত করতে চাইছে৷