প্রেমের নয়, চুলের তাজমহল

১২:৪২ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, জুন ৭, ২০১৯ চিত্র বিচিত্র

চিত্র-বিচিত্র ডেস্ক :: ক্যালিফোর্নিয়ার হেয়ারড্রেসার রব দ্য অরিজিনাল-কে নাপিত বলার সাহস খুব কম লোকেরই হবে। বরং তাঁকে ওয়েব আর্টিস্ট বলাই ভালো। মাথার চুল কেটে শিল্পকর্ম বানানোর ক্ষমতা রাখেন এই অনন্য শিল্পী।

রবের আদিবাস ক্যালিফোর্নিয়ার লস এঞ্জেলেসে। তবে হালের সাকিন টেক্সাসের স্যান অ্যান্টোনিও শহরে আজকাল থাকেন তিনি। পেশা: চুল কাটা; নেশা: ছবি আঁকা। দু’টোকে মেলালে যা হয়, তাই হলো এখন রবের কাজ: তাঁর শিল্পই তাঁর কর্ম, বা তাঁর কর্মই তাঁর শিল্প।

ভিডিও দেখলেই রবের কর্মপদ্ধতি বোঝা যায়। বিশেষ করে মাথার পিছন দিকের চুল অতি ছোট করে ছেঁটে ফেললেই সেটা হয়ে যায় ছবি আঁকার পটভূমি বা ‘ক্যানভাস’।
এর পরে ইলেকট্রিক ক্লিপার দিয়ে আরো ছোট করে চুল ছেঁটে ছবিটাকে যেন সাদা-কালোয় ফুটিয়ে তোলেন এই শিল্পী – কেননা চুল অত ছোট করে ছাঁটলে মাথার চামড়া (বা তার আভাস) বেরিয়ে পড়ে। চুল মানে কালো, চামড়া মানে সাদা: শিল্পী যেন সাদা কাগজের ওপর সাদা পেন্সিল – বা কালো কাগজের ওপর সাদা পেন্সিল দিয়ে ছবি আঁকছেন। মাঝেমাঝে অবশ্য নানা ধরণের রঙেরও ব্যবহার করেন তিনি।

সহজ ‘ফেড’ থেকে জটিল ডিজাইন, এমনকি মানুষের মুখচ্ছবি পর্যন্ত, তাঁর ক্লিপার ব্যবহার করে সব কিছু আঁকতে পারেন এই ‘হেয়ার আর্টিস্ট’। রব বলেন, তিনি সর্বত্রই ‘আর্ট’ দেখেন, কাঠের ওপর কোনো তরল পদার্থ পড়ে যে দাগ হয়, অথবা গাড়ির ওপর যে ধুলো জমে, এ সবই তাঁর কাছে শিল্পকলা।

রবের নিজের শিল্প ওয়েবে সাড়া তুলেছে তো বটেই, বরং সেই সঙ্গে রবকে আন্তর্জাতিক খ্যাতি এনে দিয়েছে। কুইন লতিফার শো থেকে শুরু করে, বহুবার টেলিভিশনে দেখা গেছে রব-কে এবং আগামীতেও যাবে। পরিস্থিতি এমন দাঁড়িয়েছে যে, হেয়ারড্রেসার রব আর গ্রাহকদের চুল কাটার সময় পান না।

Loading...