সংবাদ শিরোনাম
বেনাপোলে নারীর ব্যাগ থেকে ৪০হাজার ৪শ ইউএস ডলার ও ১৩ লাখ ভারতীয় রুপি উদ্ধার | কয়েক দফা ধর্ষণে ছাত্রী অন্তঃসত্ত্বা , শিক্ষক গ্রেফতার | খালেদা জিয়ার সুচিকিৎসা ও মুক্তির বিষয়টি আন্তর্জাতিক মহলে তুলবে বিএনপি | পরকীয়ার টানে পালিয়েছে স্ত্রী, ক্ষোভে শ্যালিকাকে পাঁচমাস ধরে ধর্ষণ! | ফরিদপুরে বন্যায় রাস্তাঘাটসহ প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ব্যপক ক্ষতি | আবার ছুটি নিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে সাকিব | রূপগঞ্জে প্রাইভেটকার মটরসাইকেল মুখোমুখী সংঘর্ষে নিহত-১, আহত ৬ | কন্ডিশনিং ক্যাম্পে ডাক পেলেন মাশরাফি | সাতক্ষীরায় খাবারের প্রলোভন দেখিয়ে তৃতীয় শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণ | সুনামগঞ্জের হাওরাঞ্চলে ঐতিহ্য ‘ভাইয়াফি’ কুস্তি খেলা |
  • আজ ৩রা ভাদ্র, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

ট্রাফিক কনস্টেবল‌কে বুকে জড়িয়ে ধরা ছবিটি সর্বমহলে প্রশংসিত

১১:১৮ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, জুন ৭, ২০১৯ খুলনা

শামসু‌জ্জোহা পলাশ, চুয়াডাঙ্গা প্র‌তি‌নি‌ধি : চুয়াডাঙ্গা জেলার শীর্ষ পু‌লিশ কর্মকর্তা (এস‌পি) মাহবুব রহমান পি‌পিএম (বার) তার অ‌ধিনস্থ  একজন ট্রাফিক কনস্টেবল‌কে বুকে জড়িয়ে ধরার ছবিটি প্রশংসা কুড়াচ্ছে সবার।  ঈদের দিন রাস্তায় দায়িত্ব পালনের ‍সময় জনসন্মু‌খে এক কনস্টেবল‌কে বু‌কে টে‌নে নেওয়ার এ ছবিটি সামা‌জিক যোগা‌যোগ মাধ্যম ফেসবু‌কে প্রকাশ পাওয়ায় ছ‌বি‌টি ভাইরাল হওয়াসহ সর্বমহ‌লের প্রশংসায় ভাস‌ছেন পুলিশ ‍সুপার।

ছবিতে দেখাযায়, গত বুধবার (৫জুন) ঈদের দিন পরিবার পরিজনকে ফেলে চুয়াডাঙ্গার হাসান চত্তরে রাস্তায় দায়িত্বে থাকা একজন ট্রাফিক কনস্টেবলের সাথে কোলাকুলি করছেন পুলিশ সুপার মাহবুব রহমান।

ছবিটি সামাজিক যোগা‌যোগ মাধ্যম ফেসবু‌কে দেখে অ‌নে‌কেই মন্তব্য ক‌রে লি‌খে‌ছেন, যেখা‌নে একজন পু‌লিশ কনস‌টেবল পু‌লিশ সুপা‌রের সাম‌নে গি‌য়ে কথা বলা বা সাক্ষাত করার সুযোগ খুব কম হয় সেখা‌নে রাস্তায় দায়িত্ব পালনকালে কনস্টেবল‌কে পুলিশ সুপার মাহবুব  বুকে টে‌নে নি‌য়ে যে মহানুভবতার প‌রিচয় দি‌লেন তা হয়‌তো আমা‌দের দে‌শে কম ঘটে। আপনার মত প্রতি‌টি জেলার পু‌লিশ সুপার য‌দি কনস‌টেবল‌দের‌কে এভা‌বে বু‌কে টে‌নে নেয় তা‌দের পা‌শে থে‌কে সাহসজোগায় তাহ‌লে পু‌রো পু‌লিশ বিভা‌গের ভাবমূ‌র্তি প‌রিবর্তণ হ‌তে সময় লাগ‌বে না। স্যালুট আপনা‌কে স্যার।

তুষার আলী লিখেছেন, স্যার আপনার মত মহানভূতিশীল পুলিশ সুপার পেয়ে আমরা চুয়াডাঙ্গা জেলার সকল পুলিশ সদস্য গর্বিত।

জাহিদ খান লিখেছেন, এ অনুভূতি একজন দায়িত্বশীল কর্মকর্তার। এ অনুভূতি একজন মহান মানুষের। এ অনুভূতি একজন যোগ্য অভিভাবকের, যোগ্য শিক্ষকের। এ অনুভূতি একজন জেলার সুযোগ্য পুলিশ সুপারের যিনি তার সুযোগ্য নেতৃত্বে সোনার বাংলা গড়ার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছেন। আমরা তার অধীনস্থ অধঃস্তন হিসাবে গর্বিত। ধন্যবাদ স্যারকে।

এ ছবিটির বিষয়ে খবর নিয়ে জানা যায়, চুয়াডাঙ্গা পুলিশ লাইনে  ঈদের নামায পড়ে ‍শহর পরিদর্শনে বের হন পুলিশ সুপার মাহবুব রহমান। সেসময় শহরের হাসান চত্তরে ট্রাফিকের দায়িত্ব পালন করছিলেন আলমগীর হোসেন। গাড়ি থামিয়ে ট্রাফিক কনস্টেবল‌ আলমগীরকে বুকে জড়িয়ে ধরেন তিনি। এ দৃশ্য দেখে আশে পাশের অনেকেই অভাক হয়েছেন। অনেকের মতে শহর ঘুরে ঘুরে অ‌ধিনস্থদের সাথে এভাবে ঈদের আনন্দ ভাগ করে নেয়ার দৃশ্যটা বিরল। একাজটি বড় মনের পরিচয় বহন করে বলে ‍সাধারণরা মনে করছেন।

এ বিষয়ে কনস্টেবল‌ আলমগীরের কাছে জানতে চাইলে সময়ের কণ্ঠস্বরকে জানান, ঈদের দিন পরিবারকে দূরে রেখে কাজ করায় মনটা খুব খারাপ ছিল। কিন্তু স্যার যখন আমাকে বুকে জড়িয়ে ধরলো তখন আমার কাছে যে কেমন অনুভূতি হয়েছে তা আমি বুঝাতে পারবো না। তিনি বলেন, আমার মনে হয়েছে  ঈদের আনন্দ আমার কাছে কয়েকগুণ বেড়ে গিয়েছে।

গত ৫জুন জেলা পুলিশ চুয়াডাঙ্গা নামের ফেসবুকে আইডিতে ছবিটি পোষ্ট করে লেখা হয়,  সবাই যখন ঈদের আনন্দ ভাগাভাগিতে ব্যস্ত, তখন বাংলাদেশ পুলিশের সদস্যরা আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় নিবিড়ভাবে তার দায়িত্ব পালন করে থাকে। একজন পুলিশের কনস্টেবল যখন তার পরিবারের সকল সদস্যদের সাথে আনন্দ ভাগাভাগি না করে তার আনন্দটুকু সাধারণ মানুষের নিরাপত্তায় নিয়োজিত করে, তখন অবশ্যই তাকে বুকে জড়িয়ে ধরা উচিত।

I love my police, I love my country.

Regards

Mahbub

SP Chuadanga