মেয়ের বিয়ের আগেই যুবলীগ নেতার হাত ধরে পালাল মা!

১:২৩ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, জুন ১১, ২০১৯ আলোচিত

সময়ের কণ্ঠস্বর, কুমিল্লা- কুমিল্লার মুরাদনগর উপজেলায় যুবলীগ নেতা রজ্বব হোসেন রাজু (৩৮) পাশের গ্রামের সিঙ্গাপুর প্রবাসী নাছির উদ্দিনের স্ত্রী রিতা আক্তারকে (৩৬) নিয়ে পালিয়ে বিয়ে করার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

রজ্বব হোসেন রাজু আকবপুর ইউনিয়নের আওয়ামী যুবলীগের আহ্বায়ক। এই ঘটনায় তাকে তার পদ থেকে সাময়িক বহিষ্কার করা হয়েছে।

এলাকায় গিয়ে জানা যায়, ঈদুল ফিতরের পরের দিন ৬ মে রাতে শ্রীকাইল ইউনিয়নের মোহাম্মদপুর গ্রামের সিঙ্গাপুরপ্রবাসী নাছির উদ্দিনের স্ত্রীর (৩৬) সাথে দীর্গদিন ধরে পরকীয়া প্রেমের সম্পর্কের টানে উভয়ে পালিয়ে যায়। প্রতিবেশীরা বলেন, প্রবাসী স্বামী ছেড়ে যাওয়া ওই নারীর বড় মেয়ের ঈদের এক সপ্তাহ পর বিয়ে হওয়ার কথা থাকলেও মায়ের কারণে এখন তা ভেঙে গেছে। ওই নারীর দুই মেয়ে ও এক ছেলে আছে।

অপরদিকে আকুবপুর ইউনিয়নের ঘোড়াশাল গ্রামের যুবলীগ নেতা রজ্বব হোসেন রাজুর পরিবারেও স্ত্রী ও সন্তান রয়েছে। তার প্রথম স্ত্রী আত্মহত্যা করেন এবং এক মেয়ে আছে, বিবাহিতা। দ্বিতীয় স্ত্রীর পরিবারে আছে দুই ছেলে।

বাঙ্গরা বাজার থানা যুবলীগের আহ্বায়ক নাইউম খান ও সদস্যসচিব আব্দুল্লাহ নজরুল বলেন, আকুবপুর ইউনিয়ন যুবলীগ কমিটির আহ্বায়ক পদ থেকে রজ্বব হোসেন রাজুকে সাময়িক বহিষ্কার করেছি। এলাকায় যুবলীগ নেতা রাজুর বিরুদ্ধে সাধারণ মানুষের অনেক অভিযোগ প্রাথমিকভাবে প্রমাণিত হয়েছে। তার ভয়ে এলাকার মানুষ আতঙ্কে থাকেন।

একই গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা মো. সফিকুল ইসলাম বলেন, তার বিরুদ্ধে অভিযোগ সত্য, সে নিজে বিবাহিত হয়ে অন্যের স্ত্রী নিয়ে পালিয়ে যাওয়া অত্যন্ত নিন্দনীয়, তাকে পূর্বেও আমি সাবধান হতে পরামর্শ দিয়ে ছিলাম, কিন্তু সে একের পর এক দুর্নাম করে আওয়ামী যুবলীগ ও ঘোড়াশাল গ্রামের মর্যাদা ক্ষুণ্ন করেছে।

বহিষ্কৃত যুবলীগ নেতার মুঠোফোনে একাধিকবার যোগাযোগ করেও তাকে পাওয়া যায়নি।