সংবাদ শিরোনাম
মহিলাকে রাম দা দেভিয়ে ফেঁসে গেলেন যুবলীগ নেতা! | মেয়ের বাড়িতে মিলিত হতে গিয়ে আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পড়ল যুবক! | ঘরের দরজা খুলে গৃহবধূর মুখ চিপে চারজন মিলে পালাক্রমে গনধর্ষণ! | ১০ বছরের শিশুকে সুপারি বাগানে নিয়ে ধর্ষণচেষ্টা চালাল রিক্সা চালক! | গায়ে হলুদের অনুষ্ঠানে অশ্লীল নৃত্য ও মদের আসরের প্রতিবাদ করায় প্রবাসীকে পিটিয়ে হত্যা! | ভারতের কাছে পাকিস্তানের লজ্জার হার! | আমেরিকার ঘুম হারাম করতে অবাক করা খবর দিলেন এরদোগান! | জাদুর খেলা দেখাতে গিয়ে মাঝনদীতে ‘ভ্যানিস’ জাদুকর! | মুক্তিযুদ্ধে চেতনা ও দক্ষতা বিবেচনায় পদোন্নতির নির্দেশ প্রধানমন্ত্রীর | রাজবাড়ীতে ইউপি চেয়ারম্যান কালাম মৃধাকে কুপিয়ে যখম |
  • আজ ৩রা আষাঢ়, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

২ বছর স্মার্টফোন থেকে দূরে, পরীক্ষায় দেশসেরা

১:৫২ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, জুন ১১, ২০১৯ আন্তর্জাতিক

আন্তর্জাতিক ডেস্ক- দুই বছর ছিলেন স্মার্টফোন এবং সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম থেকে দূরে। মুখগুজে সারাদিন যে বই পড়তেন, তাও নয়। দিনে ৭-৮ ঘণ্টা পড়াশোনা করেছেন। এতেই বাজিমাত। ডাক্তার হওয়ার পরীক্ষায় দেশসেরা হয়েছেন নলিন খান্ডেলওয়াল।

বুধবার ভারতের ন্যাশনাল এলিজিবিলিটি কাম এনট্রেন্স টেস্ট বা এনইইটি পরীক্ষার প্রকাশিত ফলে নলিন প্রথম স্থান অধিকার করেন। তার প্রাপ্ত নম্বর ৭০১। শতাংশ হিসেবে যা দাঁড়ায় ৯৯.৯৯৯৯২৯১।

এমন সাফল্যের রহস্য কী? ১৭ বছরের নলিন জানান, আমি রোজ ৭-৮ ঘণ্টা পড়াশোনা করতাম। কোন বিষয়ে মনে দ্বিধা থাকলে সঙ্গে সঙ্গে শিক্ষকদের সহযোগিতা নিতাম। শেষ দুই বছর নিজের কাছে স্মার্টফোন ছিল না। সোশ্যাল মিডিয়াতেও সক্রিয় ছিলাম না।

রাজস্থানের সিকার জেলাতেই পড়াশোনা নলিনের। মা-বাবা দুজনেই ডাক্তার। নলিন জানান, মা-বাবার সহযোগিতা ছাড়া এই সাফল্য সম্ভব ছিল না।

বর্তমানে এইমসের রেজাল্টের অপেক্ষায় বসে থাকার কথাও জানায় সে। অন্যদিকে নলিনের বাবা রাকেশ খান্ডেলওয়াল জানান, আমরা ওর পারফরম্যান্স দেখে অবাক হয়ে যাচ্ছি। আমরা নলিনের জন্য গর্বিত।