রিজার্ভ ডে না থাকায় হতাশ বাংলাদেশ কোচ

১১:২৪ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, জুন ১১, ২০১৯ খেলা

স্পোর্টস্ আপডেট ডেস্ক :: আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ ২০১৯-এ বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কা ম্যাচটি বৃষ্টিতে পরিত্যক্ত হবার পর অনেকেই প্রশ্ন তুলছেন, লিগ স্তরের ম্যাচগুলোয় কি রিজার্ভ ডে রাখা দরকার ছিল না?

এই বিশ্বকাপে এই প্রথম সর্বোচ্চ দুটি ম্যাচ কোনরকম টস ছাড়াই পরিত্যক্ত হয়েছে। পরিত্যক্ত হওয়া আরও একটি ম্যাচ দক্ষিণ আফ্রিকা এবং ওয়েস্ট ইন্ডিজের।

আমরা এক পয়েন্ট হারালাম- সংবাদ সম্মেলনে এসে এমন হতাশার সুর বাংলাদেশ দলের কোচ স্টিভ রোডসের। অন্যদিকে শ্রীলঙ্কান অধিনায়ক দিমুথ করুণারত্নে বলছেন, পয়েন্ট ভাগাভাগিতে হতাশ হলেও আবহাওয়ার ওপর কিছু করার নেই।

ব্রিস্টলে সকাল সাড়ে দশটায় যে ম্যাচ শুরু হবার কথা ছিল- তা পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয় দুপুর ১টা ৫৭ মিনিটে। শ্রীলঙ্কার এটি টানা ২য় ম্যাচ যা বৃষ্টিতে ভেসে গেল।

এ দু’ম্যাচ থেকে ১ পয়েন্ট করে নিয়ে ৪ ম্যাচে শ্রীলঙ্কার পয়েন্ট দাঁড়ালো চার। এর আগে নিউজিল্যান্ডের কাছে হারলেও আফগানিস্তানের বিপক্ষে জয় পায় শ্রীলঙ্কা। অন্যদিকে ৪ ম্যাচে বাংলাদেশের পয়েন্ট এখন তিন। শ্রীলঙ্কার সাথে পয়েন্ট ভাগাভাগির আগে দক্ষিণ আফ্রিকার সাথে জয়, নিউজিল্যান্ড ও ইংল্যান্ডের কাছে টানা ২ ম্যাচ হারে বাংলাদেশ।

ম্যাচ পরিত্যক্ত হবার ঘোষণার পর ঘুরেফিরেই আলোচনায় ওঠে রিজার্ভ ডে না থাকার বিষয়টি। কারণ এবারের আসরে শুধু সেমিফাইনাল ও ফাইনালের জন্য রিজার্ভ ডে রাখা হয়েছে।

স্টিভ রোডস বলেন, হ্যাঁ, আমি তো মনে করি অবশ্যই। বিশেষ করে আপনার যদি ইংলিশ আবহাওয়া সম্পর্কে ধারণা থাকে তাহলে তো অবশ্যই আপনি রিজার্ভ ডে রাখতে চাইবেন।

অনেকেই আমার কাছে জানতে চেয়েছেন আবহাওয়া সম্পর্কে, কিন্তু আমার নিজের পক্ষেই এটা অনুমান করা মুশকিল। হ্যাঁ এটা একটা লম্বা টুর্নামেন্ট, লিগ ম্যাচের রিজার্ভ ডে রাখাটা কঠিন, কিন্তু যদি ম্যাচের পর বিরতি থাকে – তাহলে তো রিজার্ভ ডে রাখাই যেতো। তাহলে অন্তত দর্শকরা পরের দিন এসে ম্যাচ দেখতে পারতো।

দিমুথ করুনারত্নে বলেন, রিজার্ভ ডে থাকলে আসলে দারুণ হতো। যদিও আমি জানি যে এরকম বড় টুর্নামেন্টে সব ম্যাচের রিজার্ভ ডে রাখাটা সহজ নয়। ম্যাচের পরদিনই আমাদের ভ্রমণ করতে হয়, তারপরও দর্শকরা যারা টিকিট কেটে আসছে তারা অন্তত খুশি হতো।

পয়েন্ট ভাগাভাগি নিয়ে স্টিভ রোডস বলেন, খুবই হতাশাজনক। আমাদের লক্ষ্য ছিল ২ পয়েন্ট। আমি জানি যে শ্রীলঙ্কাও এখানে জিততে এসেছিল। তবে আমি বলবো, আমরা ১ পয়েন্ট হারালাম। কিন্তু বৃষ্টি হলে তো আর কিছু করার নেই।

দিমুথ করুনারত্নে বলেন, আমরা খেলতে এসেছিলাম। যদিও মনে হতে পারে বৃষ্টিতে পয়েন্ট ভাগাভাগি হওয়া মাঝেমধ্যে খারাপ না। তবে এরকম ফ্রি পয়েন্ট পেতে আসলে ভালো লাগে না, শেষ পর্যন্ত এরকম প্রতিযোগিতামূলক টুর্নামেন্টে মাঠে খেলাটাই মুখ্য। কিন্তু বৃষ্টি এসেছে, আমরা ১ পয়েন্ট পেয়েছি, হ্যাঁ আমি খুশি।

এদিকে স্টিভ রোডস বলেন, আমরা আসলে এখন সব ম্যাচই জিততে চাইবো। পরের ম্যাচ ওয়েস্ট ইন্ডিজের সাথে, জয় ছাড়া কিছু ভাবছি না। কারণ এটাই শুধু আমাদের হাতে রয়েছে, কিন্তু আবহাওয়া আমাদের হাতে নেই। আমরা জানি যে ওয়েস্ট ইন্ডিজ শক্তিশালী দল, তাদের আন্দ্রে রাসেলের মতো ক্রিকেটার রয়েছে, তবে আমরাও প্রস্তুত।

সাকিব আল হাসানের ইনজুরির সর্বশেষ তথ্যও জানান বাংলাদেশ কোচ। আপাতত বিশ্রামে থাকলেও ১৭ই জুন টনটনে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে তাকে পাওয়ার আশা রাখছেন রোডস।