• আজ ৭ই শ্রাবণ, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

বিয়ে করে বাড়িতে এনে নববধূকে হত্যা করে নানীর বাড়ি পালিয়ে যায় স্বামী!

১:৫২ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, জুন ১৮, ২০১৯ আলোচিত

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি :: নববধূ সোহানা আক্তারকে গলাটিপে হত্যা করে পালিয়ে গিয়েছিল ঘাতক স্বামী সাইদুল ইসলাম (২৬)। ৫ দিনের মাথায় সোমবার নারায়নগঞ্জ জেলার বন্দর থানার কলাগাছিয়া ইউনিয়নের নানাবাড়ী থেকে গ্রেফতার করেছে গজারিয়া থানা পুলিশ।

এস.আই মোস্তাফিজুর রহমান ঘাতক স্বামী সাইদুল ইসলামের গ্রেফতারের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। ঘাতক সাইদুল পুরান বাউশিয়ার আব্দুল আজিজের ছেলে।

গজারিয়া থানার এস.আই মোস্তাফিজুর রহমান জানান, তার নেতৃত্বে এএসআই বাদল ও সঙ্গীয় ফোর্স নিয়ে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে নারায়নগঞ্জ জেলার বন্দর থানার কলাগাছিয়া ইউনিয়নে সাইদুল ইসলামের নানীর বাড়ী রাতে ব্লক রেইড দিয়ে সাইদুল ইসলামকে গ্রেফতার করা হয়।

উল্লেখ্য, হাতের মেহেদীর আলতা রং শুকোয়নি কিন্তু নব বিবাহিত স্ত্রীর জীবন প্রদীপ নিভিয়ে দিয়েছে পাষন্ড স্বামী সাইদুল ইসলাম (২৬)। ঘটনাটি ঘটে বুধবার (১২ জুন)। গত ৯ জুন তাদের বিয়ে হয়। সদ্য বিবাহিত স্ত্রী সোহানা আক্তার (১৭)কে গলা টিপে হত্যা করে ফেলে ঘাতক স্বামী স্বামী সাইদুল। বিয়ের পর থেকে নেশার টাকার জন্য বার বার সোহানা আক্তারকে নির্যাতন করছিল। গত ১২জুন সকালে সোহানার কাছে নেশার জন্য টাকা চায় সাইদুল। টাকা দিতে অসম্মতি জানালে সোহানাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে পালিয়ে যায় ঘাতক স্বামী সাইদুল ইসলাম।

এ বিষয়ে গজারিয়া থানার অফিসার্স ইনচার্জ মোহাম্মদ হারুন অর-রশিদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানিয়েছেন, মামলায় এজহার নামীয় অভিযুক্ত আসামীকে গ্রেফতার করে কোর্টে চালান করা হয়েছে।