কনস্টেবলের স্ত্রীর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পু‌লিশ কর্মকর্তা!

৭:১৪ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, জুন ১৮, ২০১৯ ঢাকা, দেশের খবর

স্টাফ রি‌পোর্টার, শরীয়তপুর: পুলিশ কনস্টেবলের স্ত্রীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক গড়ে তোলার অভিযোগে শরীয়তপুর পুলিশ সুপা‌রের কার্যাল‌য়ের ওয়্যারলেস অপা‌রেটরের সহকা‌রি উপ-পরিদর্শক (এএসআই) শা‌হিন হোসেনকে পুলিশ লাইনে প্রত্যাহার করা হয়েছে।

সোমবার (১৭ জুন) রাতে ওই কনস্টেবলের স্ত্রীর সঙ্গে আপত্তিকর অবস্থায় ধরা পড়ার পর তাৎক্ষণিকভাবে তাকে জেলা পুলিশ লাইনে সংযুক্ত করা হয়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্র জানায়, শা‌হিন হোসেনের সা‌থে গত বেশ কিছু দিন ধরেই ওই কনস্টেবলের স্ত্রীর সঙ্গে অনৈতিক সম্পর্ক ছিল। ওই পুলিশ কনস্টেবল বি‌শেষ টে‌নিং‌য়ের জন্য রাঙ্গামা‌টি যাওয়ার সু‌যো‌গে তার স্ত্রীর সঙ্গে অবৈধভাবে মেলামেশা কর‌তে আসেন তি‌নি।

গতকাল সোমবার সন্ধায় শরীয়তপুর পৌরসভার উত্তর মধ্যপাড়া গ্র‌ামে ওই পুলিশ কনস্টেবলের ভাড়ার বাসায় যান শা‌হিন। রাত সা‌ড়ে ৯টার দি‌কে বা‌ড়ির মা‌লিক বাবুল মৃদ্ধা ‌বিষয়‌টি টের পে‌য়ে বাইরে থেকে বা‌ড়ির মেইন গে‌টের দরজায় তালা দিয়ে রা‌খেন। এরপর ঘটনা‌টি স্থানীয়‌দের মা‌ঝে প্রকাশ পায়। রাত ১২টার দি‌কে ঘটনাটি পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের জানা‌নো হ‌লে সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামরুল হাসান ও পালং ম‌ডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আসলাম উ‌দ্দিন ঘটনাস্থ‌লে যান।

এরপর সঙ্গে সঙ্গে শা‌হিন‌কে প্রত্যাহার করা হয়। পুলিশ কর্মকর্তারা ওই রাতেই তা‌কে জেলা পুলিশ লাইনে পাঠায়। তবে ওই কনস্টেবলের স্ত্রীকে ওই বা‌ড়িতেই রাখা হয়ে‌ছে।

বা‌ড়ির মা‌লিক বাবুল মৃদ্ধা জানান, বে‌শি কিছু‌দিন ধ‌রে এএসআই শা‌হিন আরেক পু‌লিশের স্ত্রীর রু‌মে আসা যাওয়া কর‌তো। সন্ধার দি‌কে শা‌হিন ওই রু‌মে আস‌লে আমি আমার ভারা‌টিয়ার কা‌ছে ‌কে আস‌ছে জান‌তে চাই‌লে সে উ‌ত্তে‌জিত হ‌য়ে ও‌ঠে। একপর্যা‌য়ে আমা‌কে হুম‌কি ধাম‌কি দেওয়া শুরু ক‌রে। প‌রে প্র‌তি‌বে‌শিরাসহ পু‌লি‌শের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা আমার বা‌ড়ি‌তে এ‌সে শা‌হিন‌কে নি‌য়ে যায়।

সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামরুল হাসান ব‌লেন, শা‌হিন‌কে প্রত্যাহার করা হ‌য়ে‌ছে। তার বিরুদ্ধে তদন্তপূর্বক বিভাগীয় ব্যবস্থা গ্রহন করা হ‌বে।

তি‌নি আরো জানায়, এটা নৈতিক অবক্ষয়। পুলিশ বাহিনীতে এ ধরনের অপরাধ সহ্য করা হয় না।