পরকীয়ার জেরে স্বামীকে হত্যা করে স্বপ্নে দেখা লাশের অবস্থান জানালেন স্ত্রী!

২:০৯ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, জুন ২০, ২০১৯ ঢাকা, দেশের খবর

রাজবাড়ী প্রতিনিধি :: রাজবাড়ীর কালুখালী উপজেলার মোহনপুর গ্রামে পরকীয়ার জেরে আব্দুর রহিম নামের (৩৫) এক দরিদ্র ভ্যানচালককে হত্যা করা হয়েছে। এ হত্যাকান্ডে জড়িত থাকার সন্দেহে পুলিশ নিহতের স্ত্রী সুফিয়াকে আটক করেছে।

বুধবার বিকালে উপজেলার মাজবাড়ী ইউয়িনের মোহনপুর গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। নিহত ভ্যানচালক একই গ্রামের কেসমত শেখের ছেলে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, নিহত ভ্যান চালকের স্ত্রী গৃহবধূ সুফিয়া বেগম স্থানীয় এক গ্রাম্য ডাক্তারের সাথে দীর্ঘদিন পরকীয়া সম্পর্কে লিপ্ত ছিলেন। পরকীয়ায় জেরে ওই গ্রাম্য ডাক্তারের সাথে অসামাজিক কার্যাকলাপ করার সময় বেশ কবার হাতে নাতে স্থানীয়রা আটকও করে। এ নিয়ে রহিম মিয়া তার স্ত্রীকে কয়েক দফা মারপিট ও শাসনও করে। কিন্তু তাতেও স্ত্রী সুফিয়া ওই পরকিয়া থেকে বিরত না থেকে বরং তার পরকিয়া প্রেমিক গ্রাম্য ডাক্তারকে সাথে নিয়ে নিরিহ ভ্যান চালককে হত্যার ফঁন্দি করে।

এরই ধারাবাহিকতায় গত সোমবার থেকে নিহত ভ্যান চালক নিখোঁজ হন। বুধবার সকালে নিহতের স্ত্রী এলাকাবাসীকে জানা,য় তিনি স্বপ্নে দেখেছেন তার স্বামীকে কেউ হত্যা করে একই ইউনিয়নের রায় পুর বিলের এক দীঘের পাশে ফেলে গেছে। ঐ গৃহবধূর কথা সন্দেহজনক হলে এলাকাবাসী দীঘির পাশ থেকে ভ্যানচালকের মৃতদেহ উদ্ধার করে। পুলিশ গৃহবধূকে আটক করে জিজ্ঞেসাবাদ করছে।

নিহত ভ্যানচালকের মা সাফিরন বেগম জানান, আমার ছেলেকে ওর (ছেলে) বউ-ই হত্যা করেছে। বিলাপ করতে করতে নিহতের মা বলেন, ওই মেয়ে চলে যেতে চাইলে চলে যাইত, আমার ছেলেকে কেন হত্যা করল।

Skip to toolbar