কাউখালীতে আসামির দায়ের কোপে এ.এস.আই গুরুতর জখম

১১:৩৮ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, জুন ২৮, ২০১৯ বরিশাল
Kawkhali Pic Rafik

সৈয়দ বশির আহম্মেদ, পিরোজপুর প্রতিনিধি: পিরোজপুরের কাউখালী উপজেলার জয়কুল গ্রামে একটি মামলার তদন্ত করতে গিয়ে অভিযুক্তদের  ধারালো অস্ত্রের আঘাতে আহত হয়েছেন পুলিশের এএসআই মো. রফিকুল ইসলাম(৩৫)।

শুক্রবার সকাল ১১টার দিকে জয়কুল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে ঘটনাটি ঘটে। এসময় আসামি হায়দার আলী হাওলাদার ও তার স্ত্রী সানজিদা আক্তার পরী পালিয়ে যায়।

এলাকাবাসী জানান, জয়কুল গ্রামের  মোঃ পনিরের স্ত্রী হ্যাপি বেগম বৃহস্পতিবার কাউখালী থানায় একই গ্রামের হায়দার ও তার স্ত্রী সানজিদা বেগম পরীর বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দেয়। শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে কাউখালী থানার এ এসআই রফিকুল ইসলাম ও কষ্টেবল মোঃ কাদের জয়কুল গ্রামে হায়দারের বাড়ি গিয়ে হায়দারকে ডাকাডাকি করলেও দরজা খুলেনি। কিন্তু কোন সাড়া শব্দ না করে হঠাৎ দরজা খুলে হায়দার ও তার স্ত্রী পরী বেগম  কাউখালী থানার উপ-সহকারী পরিদর্শক রফিকের উপর ধারালো দা দিয়ে এলোপাতারি কোপাতে থাকে। এসময় রফিক নিজেকে রক্ষা করতে গেলে তার দুহাত ও মুখ মন্ডলে দায়ের কোপে মারাত্মক হয়। এসময় আশ-পাশের লোকজন এগিয়ে আসলে হায়দার ও তার স্ত্রী কৌশলে পালিয়ে যায়।

আহত এএসআই রফিকুল কে প্রথমে কাউখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে  নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক  উন্নত চিকিৎসার জন্য বরিশাল শেরে এ বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরন করে।