হজের প্রথম ফ্লাইট বৃহস্পতিবার, আশকোনা ক্যাম্পে আসছেন হাজীরা

৬:২৩ অপরাহ্ণ | বুধবার, জুলাই ৩, ২০১৯ ফিচার

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্ক- চলতি বছর বাংলাদেশ থেকে হজে যাচ্ছেন সোয়া লাখেরও বেশি ধর্মপ্রাণ মুসলমান। বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) সকাল সোয়া ৭টায় ৪১৯ জন যাত্রী নিয়ে হজের প্রথম ফ্লাইট ঢাকার হজরত শাহজালাল আর্ন্তজাতিক বিমানবন্দর ত্যাগ করবে।

প্রতিবারের মতো রাজধানীর আশকোনা হজক্যাম্প থেকেই যাবতীয় কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। এবারই প্রথম ঢাকায় ইমিগ্রেশন সম্পন্ন করে প্লেনে উঠবেন যাত্রীরা, ফলে সৌদি আরব গিয়ে থাকবে না কোনো বাড়তি ঝামেলা।

এদিকে আল্লাহর মেহমান হাজীদের স্বাগত জানাতে নতুন রূপে সেজেছে ঢাকার আশকোনার হজ ক্যাম্প। আরবি ও বাংলা ভাষায় লেখা ব্যানার ও ফেস্টুন দিয়ে সাজানো হয়েছে এয়ারপোর্ট থেকে হজ ক্যাম্প পর্যন্ত রাস্তার দু’পাশ। বসানো হয়েছে সুসজ্জিত একাধিক তোরণ। হজ ক্যাম্পের ভেতরে বিভিন্ন ব্যাংক এবং কোম্পানির সৌজন্যে নিয়োজিত রয়েছে স্বেচ্ছাসেবীরা। বসানো হয়েছে হেল্প ডেস্ক।

আশকোনার পুরো হজক্যাম্পই এখন নতুন রূপে সেজেছে। প্রস্তুত হচ্ছে হাজীদের বরণ করে নিতে। যদিও প্রত্যেক হাজী দু’একদিন এখানে থাকার পর হজ পালনের উদ্দেশ্যে নির্ধারিত ফ্লাইটেই এখান থেকেই চলে যাবেন সৌদী আরবে।

আজ বুধবার সকালে থেকেই হজ ক্যাম্প ঘুরে দেখা গেছে হাজীরা আসছেন বিভিন্ন এলাকা থেকে। বিশেষ করে প্রথম দিকে যাদের ফ্লাইট তারা চলে আসছেন আগেভাগেই। ক্যাম্পের দোতলায় হাজীদের থাকার ব্যবস্থা করেছে কর্তৃপক্ষ। হজে গমনেচ্ছুদের সাথে ক্যাম্পে আসছেন আত্মীয়স্বজনরাও। তবে ক্যাম্পে তাদের থাকার কোনো অনুমতি নেই।

আশকোনা হজ অফিসের পরিচালক সাইফুল ইসলাম জানান, সরকারি-বেসরকারি ব্যবস্থাপনায় এবার এক লাখ ২৭ হাজার ১৯৮ হজযাত্রী সৌদি আরবে যাবেন। তাদের মধ্যে সাত হাজার ১৯৮ জন যাবেন সরকারি ব্যবস্থাপনায়। এরই মধ্যে সিভিল এভিয়েশনের ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়ে ক্যাম্পের আশপাশের এলাকা থেকে অবৈধ স্থাপনা অপসারণ করেছে। শেষ হয়েছে ক্যাম্পের পরিচ্ছন্নতাসহ ধোয়ামোছার কাজও।

বিমানবন্দর থানার ওসি নূরে আজম মিয়া জানান, ক্যাম্পের নিরাপত্তায় ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের পাশাপাশি বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা মোতায়েন রয়েছেন। নিরাপত্তার বিষয়টি মাথায় রেখে এবারও হজযাত্রীদের বিদায় ও অভ্যর্থনা জানানোর জন্য আত্মীয়স্বজনকে ক্যাম্পের ভেতরে প্রবেশে নিরুৎসাহিত করা হচ্ছে বলে জানান পুলিশের এই কর্মকর্তা।