এবার সৌদি আরব মাতাবেন নিকি মিনাজ

৩:৫৯ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, জুলাই ৪, ২০১৯ বিনোদন

বিনোদন ডেস্ক- এবার দিন বদলের হাওয়া লেগেছে মুসলিমদের তীর্থস্থান সৌদি আরবে। ধর্মীয় রীতির প্রতি যত্নশীল এই দেশটির সাম্প্রতিক সময়ে রূপ পরিবর্তন হতে দেখছে বিশ্ববাসী। সৌদিতে বৈধতা পেয়েছে নারীদের গাড়ি চালানো, স্টেডিয়ামে যাওয়া এবং কনসার্ট দেখার। এ নিয়ে নানা বিতর্ক সৃষ্টি হলেও প্রশংসার চোখে দেখেছেন অনেকে।

তবে এই দিন বদলের ধারায় এবার দেশটির জেদ্দা শহরে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে একটি আন্তর্জাতিক কনসার্ট। আর সেখানে প্রধান গায়িকা হিসেবে থাকবেন মার্কিন পপ তারকা নিকি মিনাজ। আগামী ১৮ জুলাই কিং আবদুল্লাহ স্পোর্টস স্টেডিয়ামে ওই কনসার্টের আয়োজন করা হচ্ছে।

সংবাদমাধ্যম গলফ নিউজের খবরে বলা হয়, স্থানীয় সময় বুধবার কনসার্টের আয়োজকদের পক্ষ থেকে এমন ঘোষণা এসেছে। তবে রক্ষণশীল হিসেবে পরিচিত এই দেশটির এমন পদক্ষেপে বিস্মিত হয়েছেন অনেকে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, জেদ্দা ওয়ার্ল্ড ফেস্টে যোগ দিতেই সৌদি আসছেন মিনাজ। এই মিউজিক ফেস্টিভালটি জুলাইয়ের ১৮ তারিখ অনুষ্ঠিত হবে। এতে ডিজে স্টিভ এওকি এবং গায়ক লিয়াম পাইনেও অংশ নেবেন। এই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে ইচ্ছুক আন্তর্জাতিক দর্শনার্থীদের দ্রুততার সঙ্গে ভিসা দিচ্ছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।

মিনাজ যত না র‍্যাপার হিসেবে পরিচিত তার চেয়ে বেশি পরিচিত তার স্পষ্ট লিরিক এবং ‘অশালীন’ পারফরমেন্সের জন্য। এরপরও তিনি সৌদি আরবে কিভাবে আমন্ত্রণ পেলেন সেই প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে সবার মনে।

সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ান জানায়, কনসার্টটিতে মদ নিষিদ্ধ থাকবে। এ ছাড়া নারীদের পরিধান করতে হবে আবায়া (এক ধরনের ঢিলেঢালা লম্বা পোশাক)।

তবে এ নিয়ে চটেছেন নারীদের একটা অংশ। তারা জানান, নিকি মিনাজের গানগুলো যৌনতা সংক্রান্ত এবং অশ্লীল শারীরিক অঙ্গভঙ্গিপূর্ণ। আর সেখানে উপস্থিত সৌদি নারীদের আবায়া পরতে বলা হয়েছে!

অবশ্য সম্প্রতি কিছু বিধি-নিষেধ থেকে বের হয়ে এসেছে সৌদি আরব। গত বছর সিনেমা হলের ওপর ৩৫ বছর ধরে চলা নিষেধাজ্ঞা তুলে নেয় কর্তৃপক্ষ এবং নারীদের ড্রাইভিংয়ের অনুমতি দেয়া হয়।

দেশটির অর্থনৈতিক পুনর্গঠনের জন্য ভিশন ২০৩০-এর আওতায় এসব করছে সৌদি সরকার। তারা মূলত তেলের ওপর নির্ভরশীলতা কমাতে চাচ্ছে। এজন্যই দেশের অভ্যন্তরে অর্থ খরচের জন্য নাগরিকদের বিভিন্ন সুযোগ করে দেয়া হচ্ছে।