ইজরায়েলের তৈরি মদের বোতলে সানগ্লাস চোখে মহাত্মা গান্ধী!

১১:০৫ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, জুলাই ৪, ২০১৯ চিত্র বিচিত্র
gamdhi

চিত্র বিচিত্র ডেস্কঃ রংবেরঙের টাই অ্যান্ড ডাই টি-শার্ট। তার উপর চাপানো সাদা রঙের ফ্যাশনেবল জ্যাকেট। চোখে কালো গোল কাচের রোদ চশমা। গলায় সোনার চেন। আর এসব পড়েই ইজরায়েলের বিয়ারের বোতলের লেবেলে গাল ভরে হাসছেন মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধী।

তাঁর চেনা খাটো ধুতি, হাতে লাঠি, খালি গা আর গোল চশমার ইমেজ বিলকুল গায়েব। বিয়ারের বোতলের গান্ধী অনেক আধুনিক। তাঁর স্টাইল খানিকটা হিপস্টার গোছের।

এই হিপ্পি অবতারে গান্ধীর ছবিখানা বছর পাঁচেক আগে এঁকেছিলেন এক ইজরায়েলি শিল্পী অমিত শিমোনি। সেই ছবিই সম্প্রতি জায়গা পায় ইজরায়েলের মালকান বিয়ারের স্পেশাল এডিশন বোতলে।

যা বাজারে আসতেই গেল গেল রব ওঠে ভারতে। মঙ্গলবারই বিষয়টি নিয়ে রাজ্যসভায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন সাংসদরা। রাজ্যসভার সভাপতি এস বেঙ্কাইয়া নায়ডু বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকরকে বিষয়টি খতিয়ে দেখার নির্দেশও দেন।

যার জেরে বুধবারই ভারতের থেকে ক্ষমা চেয়ে নিল ইজরায়েলের ওই পানীয় সংস্থাটি। ভারতের জিজ্ঞাসার জবাবে মালকান বিয়ার জানিয়েছে, “মহাত্মা গান্ধীকে আমরা অত্যন্ত সম্মান করি। বিয়ারের বোতলের লেবেলে তাঁর ওই ছবিটি তাঁকে সম্মান জানাতেই ব্যবহার করেছিলাম আমরা।

তবু অনিচ্ছাকৃতভাবে সেই ভুল যে ভারত সরকারকে এবং ভারতের জনতার আবেগকে আঘাত করেছে, তাতে আমরা অত্যন্ত দুঃখিত। আমরা এজন্য ভারতের সরকার ও জনতার কাছে ক্ষমা চাইছি।”

শুধু তাই নয়, মালকান বিয়ার তাদের ওই বিশেষ বিয়ারের বোতলের উৎপাদনও থামানোর নির্দেশ দিয়েছে। তাছাড়া যে সমস্ত গান্ধীর ছবি দেওয়া বোতল ইতিমধ্যেই বাজারে পৌঁছেছে, সেগুলিও ফেরত আনার চেষ্টা শুরু করেছে পানীয় সংস্থাটি।

গান্ধীর ছবি বিয়ারের বোতলে ব্যবহার করা প্রসঙ্গে একটি সাফাইও দিয়েছেন মালকান বিয়ারের ব্র‌্যান্ড ম্যানেজার গিলাড ড্রোর তিনি বলেন, ইজরায়েলের ৭১তম স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষ্যেই ওই বিশেষ লিমিটেড এডিশন বিয়ারের বোতল লঞ্চ করা হয়েছিল।

এই প্রথম ইজরায়েলের বাইরের কোনও রাজনৈতিক ব্যক্তিত্ব জায়গা পেলেন ওই বিয়ারের বোতলে। এর আগে ইজরায়েলের প্রাক্তন তিন প্রধানমন্ত্রী ডেভিড বেন গুরিয়ন, গোল্ডা মেইর এবং মেনাসেম বেগিনের ছবি দেওয়া বোতল বাজারে এনেছিল মালকান বিয়ার।