যুদ্ধাপরাধী বা জামায়াত পরিবারের সদস্যদের দলে অন্তর্ভুক্ত করার কথা অস্বীকার করলেন কাদের

১২:২৬ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, জুলাই ৫, ২০১৯ Uncategorized, জাতীয়
kader

সময়ের কণ্ঠস্বর ডেস্কঃ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন বিভাগের সভাকক্ষে ‘বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরাম’-এর (বিএসআরএফ) নেতাদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের জানিয়েছেন, স্বাধীনতার চেতনাবিরোধী বা সাম্প্রদায়িক মনোভাব সম্পন্ন কাউকে আওয়ামী লীগের সদস্য করা হবে না।

২১ জুলাই শুরু হচ্ছে আওয়ামী লীগের সদস্য সংগ্রহ অভিযান। পরিবারের কেউ যুদ্ধাপরাধী বা জামায়াত থাকলেও দলীয় সদস্য হওয়ার ক্ষেত্রে বাধা থাকবে না, গত সপ্তাহে রাজধানীর ধানমণ্ডিতে আওয়ামী লীগ সভাপতির কার্যালয়ে দেওয়া এমন বক্তব্যের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করা হলে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘নো, এ কথা আমি বলতে পারি না। আমি এটা বলিনি।’

কাদের আরও বলেন, ‘আমাদের অবস্থান অত্যন্ত পরিষ্কার, আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধ, মুক্তিযুদ্ধের মূল্যবোধ, স্বাধীনতার আদর্শ, বাংলাদেশ রাষ্ট্র জন্মের চেতনার পক্ষে।

আমাদের অবস্থান অত্যন্ত স্পষ্ট, এদের (স্বাধীনতাবিরোধী) মনোনয়ন দেওয়া, এদের সদস্য করা। এ ব্যাপারে দলের অবস্থান অত্যন্ত কঠোর। এখানে আপসকামিতার প্রশ্নই ওঠে না।’ তিনি বলেন, ‘নতুন যে সদস্য সংগ্রহ অভিযান শুরু হয়েছে এর মাধ্যমে স্বাধীনতাবিরোধী কেউ (আওয়ামী লীগে) আসতে পারবে না।’

বিএনপির কেউ আওয়ামী লীগে আসতে চাইলে দলীয় অবস্থান কী হবে এ প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘যারা বিএনপি থেকে আসতে চায় সে ব্যাপারেও দলের অবস্থান, নীতিগতভাবে আমরা চিন্তাভাবনা করেই ঠিক করি। সাম্প্রদায়িক দৃষ্টিকোণ থেকে আমরা যাদের দেখি, তারা জামায়াত হোক বিএনপি হোক একইভাবে দেখি।’

গত ১০ বছরে আওয়ামী লীগে ‘অনুপ্রবেশকারীদের’ সদস্যপদ নবায়ন হবে কি না, জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘না, গতবার আমরা নবায়ন করিনি। গত বছর যাদের আমরা নবায়ন করেছি, সেই তালিকায় কোনো স্বাধীনতাবিরোধী বা সাম্প্রদায়িক শক্তির অনুপ্রবেশ হয়নি।’