সংবাদ শিরোনাম
  • আজ ২৯শে আশ্বিন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

সন্ধান মেলেনি নিখোঁজ ২৯ জেলের

৫:০৫ অপরাহ্ণ | সোমবার, জুলাই ৮, ২০১৯ দেশের খবর, বরিশাল

এস আই মুকুল, নিজস্ব প্রতিবেদক- বঙ্গোপসাগরের মোহনায় ঝড়ের কবলে পড়া পৃথক তিন ট্রলার ডুবির ঘটনায় ৭২ ঘন্টায়ও হদিস মেলেনি ভোলার চরফ্যাসনের নিখোঁজ জেলেদের। এ ঘটনায় এক ট্রলারের ১৪ জেলেকে উদ্ধার করা গেলেও ২৯ জেলে নিখোঁজ রয়েছেন বলে জানান চরফ্যাসন ও দুলারহাট থানার অফিসার ইনচার্জ। সোমবার (০৮ জুলাই) বিকাল ৫টায় এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তাদের সন্ধান মেলেনি।

গত শনিবার (৬ জুলাই) দুপুর ২টা ও বিকেল ৪টায় ঢালচরের শিবচর সংলগ্ন সমুদ্রে ও হাতিয়ায় মেঘনার পূর্ব পাশে এ ঘটনা ঘটে। নিখোঁজ জেলেদের বাড়ি চরফ্যাসনের আহমদপুর, রসুলপুর, জিন্নাগড় ও মাদ্রাজ ইউনিয়নে।

মাদ্রাজের শাজাহান মাঝি বলেন, গত ২ জুলাই সামরাজ মৎসঘাট থেকে ১৫ জেলে গভীর সমুদ্রে মাছ শিকারে সাগরে অবস্থান করে। ঝড়ের কবলে পড়ার খবর পেয়েছি।

চর মাদ্রাজ এলাকার নিখোঁজ জেলেরা হলেন মনির মাঝি (৩০), জিহাদ হোসেন (২৫), জুয়েল (৩০), সেলিম (৩২), বাবুল (৩৫), অলিউদ্দিন (২৭), বেলায়েত হোসেন (৩১), অজিউল্লা (২৭), মাকসুদ (২৮), কামাল (২৬), তছির (৩৩) ও জাহাঙ্গির (৩৪)।

নুরাবাদ, আহাম্মদপুর ও ফরিদাবাদ গ্রামের নিখোঁজ জেলেরা হলেন শাহাজাহান মাঝি (৫০), জামাল মিস্তুরী (৩৫), রুবেল (২২), আঃ হাই (২৫), আফসার জমাদার (৫০), শাহাজাহান (৪৫), জসিম (২০), হোসেন (৪০), রবিউল (১৮), নাসির (৪৫), সুলতান মাঝি (৫০), রফিজল (৫৫), কবির (৪০), জলিল (৩৫)। বাকি জেলের নাম জানা যায়নি।

চরফ্যাসন থানার ওসি শামসুল আরেফিন বলেন, সাগরে মাছ ধরার সময়ে আকষ্মিক ঝড়ের কবলে পড়ার ঘটনায় পুলিশ, কোস্টগার্ড ও স্থানীয়দের সহায়তায় উদ্ধারে চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

দুলারহাট থানার ওসি মিজানুর রহমান বলেন, নূরাবাদ ও আহাম্মদপুর এলাকার নিখোঁজ জেলেদের উদ্ধারে গতকাল থেকে সাগরে তৎপরতা চালানো হচ্ছে।

চরফ্যাসনে দায়িত্বে নিয়োজিত কোস্টগার্ডের কন্টিনজেন্ট কমান্ডার মোঃ ওয়ালি উল্লাহ বলেন, নিখোঁজ জেলেদের উদ্ধারে গতকাল রবিবার ও সোমবার দিনব্যাপী সাগর মোহনায় চেষ্টা চালিয়ে এক ট্রলারের ১৪ জেলেকে উদ্ধার করা হয়েছে। তবে অন্য জেলের সন্ধান পাইনি।

উপজেলা নির্বাহি অফিসার রুহুল আমিন বলেন, আমরা মাদ্রাজের সামরাজ ও ঢালচরে পরিদর্শনে গিয়েছি সেখানকার স্থানীয় জেলেদের সাথে আলোচনা হয়েছে। ট্রলার ডুবির ঘটনায় প্রশাসন ও স্থানীয়দের সহায়তায় সাগরের বিভিন্ন স্থানে নৌ স্পিড বোর্ড ও ফিসিং বোর্ড নিয়ে এখনও নিখোঁজ জেলেদের উদ্ধারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। আমাবশ্যার প্রভাবে সাগর উত্তাল থাকায় নিখোঁজ জেলেরা কোথায় আছে তা নিশ্চিত করা যাচ্ছে না।

উল্লেখ্য, উপজেলার চর মাদ্রাজ এলাকার সামরাজ মৎসঘাটের বাবুল মাঝি ও নুরাবাদের শাজাহান মাঝি ও মামুন মাঝির ট্রলার গভীর সমুদ্রে ইলিশ শিকারে গেলে শনিবার মধ্যরাতে প্রচন্ড ঝড়ের কবলে পরে তিন ট্রলার ডুবির ঘটনা ঘটেছে। এতে ২৯ জেলে নিখোঁজ রয়েছে।