ভারতের মুসলমানদের রক্ষার দাবীতে কওমী মাদরাসা শিক্ষার্থীদের বিক্ষোভ

১:৪২ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, জুলাই ৯, ২০১৯ চট্টগ্রাম

ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রতিনিধি :: ভারতে মুসলমান হত্যা-নিপীড়ন, নারী ধর্ষণ, বাড়িঘরে আগুন জ্বালিয়ে দেয়ার প্রতিবাদে ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিক্ষোভ মিছিল সমাবেশ করেছেন কওমি মাদরাসার শিক্ষার্থীরা।

সোমবার দুপুরে শহরের কান্দিপাড়াস্থ জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুছিয়া মাদরাসার সামনে থেকে বিক্ষোভ মিছিলটি বের হয়ে শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ করে ব্রাহ্মণবাড়িয়া প্রেসক্লাবের সামনে এসে শেষ হয়। এতে কওমি মাদরাসার হাজার হাজার শিক্ষার্থী অংশ নেন। পরে প্রেসক্লাবের সামনে প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ধর্ম নিরপেক্ষতার ধ্বজাধারী গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র নামে পরিচিত ভারতে রাষ্ট্রীয় ইন্ধনে চরমপন্থী হিন্দুরা সে দেশের সংখ্যালঘু মুসলমানদের হত্যা-নির্যাতন, নারী ধর্ষণ ও মুসলমানদের বাড়িঘর জ্বালিয়ে দিচ্ছে। সে দেশে মুসলমানদেরকে ইবাদতসহ ধর্মীয় রীতি-নীতি পালনে বাধা দেয়া হচ্ছে। গরু জবাই ও গোশত খাওয়ার কারণে পিটিয়ে হত্যা করে উল্লাস করছে। মুসলমানদেরকে হিন্দু দেবতার নামে ‘জয় শ্রীরাম’ বলে স্লোগান দিতে বাধ্য করা হচ্ছে। এ ধরনের কর্মকাণ্ড কোনো ধর্ম, জাতীয় ও আন্তর্জাতিক আইন সমর্থন করে না।

বক্তারা ভারতের মুসলমানদের রক্ষায় বাংলাদেশ সরকারসহ বিশ্ব নেতৃবৃন্দকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।

জামিয়া ইসলামিয়া ইউনুছিয়া মাদরাসার সিনিয়র শিক্ষক মুফিিত আব্দুল হকের সভাপতিত্বে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন, মুফতি এনামুল হাসান, মাওলানা আনোয়ার বিন মুসলিম ও মাওলানা মুজাহিদুল ইসলামসহ প্রমুখ।